biggapon ad advertis বিজ্ঞাপন এ্যাড অ্যাডভার্টাইজ XDurbar দূর্বার 1st gif ad biggapon animation বিজ্ঞাপন এ্যানিমেশন biggapon ad advertis বিজ্ঞাপন এ্যাড অ্যাডভার্টাইজ
ঢাকাThursday , 6 June 2024
  1. অন্যান্য
  2. অর্থ ও বাণিজ্য
  3. আইন-বিচার
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আবহাওয়া
  6. কৃষি ও প্রকৃতি
  7. খেলাধুলা
  8. গণমাধ্যম
  9. চাকরি
  10. জাতীয়
  11. ধর্ম
  12. নির্বাচন
  13. প্রবাসের খবর
  14. ফিচার
  15. বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
Xrovertourism rovaar ad বিজ্ঞাপন
আজকের সর্বশেষ সবখবর
  • শেয়ার করুন-

  • Xrovertourism rovaar ad বিজ্ঞাপন
  • বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার ছবি এডিট করে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অপপ্রচার

    Link Copied!

    নির্বাচনে হেরে গিয়ে কমলনগর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান খালেদ সাইফুল্লাহ’র বিরুদ্ধে তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী আহাসান উল্লাহ হিরন সামাজিক যোগাযোগ ফেসবুকে অপপ্রচার চালিয়েছে।

    বৃহস্পতিবার (৬ জুন) বিকেলে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী হিরন তার ফেসবুকে দুইটি ছবি পোস্ট করলে সেই ছবি দুইটি ভাইরাল হয়।

    পোস্টে লেখা ছিল-‘তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই! খালেদ সাইফুল্লাহ হুজুর প্রথম দিন অফিসে বসেই বঙ্গবন্ধু ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ছবি সরিয়ে ফেললেন এ দৃষ্টতার শক্তি উৎস কি আমরা জানতে চাই! মাননীয় জেলা প্রশাসক ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি’

    কমলনগর উপজেলা পরিষদের নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সুচিত্র রঞ্জন দাস জানিয়েছেন, চেয়ারম্যান খালেদ সাইফুল্লাহ মহোদয় কক্ষে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি দুইটি সাঁটানো আছে। একটি চক্র ছবিগুলোকে বিতর্কিত করে ফেসবুকে অপপ্রচার চালিয়েছে। ইচ্ছে করলে চেয়ারম্যান মহোদয় আইনগত ব্যবস্থা নিতে পারেন যারা এ অপপ্রচার চালিয়েছে তাদের বিরুদ্ধে।

    নাম-প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি বলেন, আহাসান উল্লাহ হিরন উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক চরলঞ্চে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ছিলেন। এছাড়া তিনি ৬ষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ১ম’ ধাপে (আনারস) প্রতীক নিয়ে কমলনগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে অংশগ্রহণ করেন। নির্বাচনে হেরে গিয়ে তিনি (হিরন) এখন খালেদ সাইফুল্লাহ (হুজুরের) পিছনে উঠেপড়ে লেগেছেন। চেয়ারম্যান সাইফুল্লাহ তাঁর কার্যালয়ের বসা একটি  ছবি এডিট করে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে।

    জানতে চাইলে অভিযুক্ত আহাসান উল্লাহ হিরন মুঠোফোনে বলেন, আমি ফেসবুক থেকে এ ছবি সংগ্রহ করে পোস্ট করছি। এখানে দোষের কি হয়েছে? এ বলে তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন। একপর্যায়ে বলেন তিনি সেই পোস্ট ডিলেট করে দিলাম।

    এ বিষয়ে জানতে লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসক সুরাইয়া জাহানকে মোবাইল ফোনে কল করে তার বক্তব্যে নেওয়া সম্ভব হয়নি।

    Share this...

    বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বে-আইনি।
    ঢাকা অফিসঃ ১৬৭/১২ টয়েনবি সার্কুলার রোড, মতিঝিল ঢাকা- ১০০০ আঞ্চলিক অফিস : উত্তর তেমুহনী সদর, লক্ষ্মীপুর ৩৭০০
    biggapon ad advertis বিজ্ঞাপন এ্যাড অ্যাডভার্টাইজ  
  • আমাদেরকে ফলো করুন…