biggapon ad advertis বিজ্ঞাপন এ্যাড অ্যাডভার্টাইজ XDurbar দূর্বার 1st gif ad biggapon animation বিজ্ঞাপন এ্যানিমেশন biggapon ad advertis বিজ্ঞাপন এ্যাড অ্যাডভার্টাইজ
ঢাকাTuesday , 4 June 2024
  1. অন্যান্য
  2. অর্থ ও বাণিজ্য
  3. আইন-বিচার
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আবহাওয়া
  6. কৃষি ও প্রকৃতি
  7. খেলাধুলা
  8. গণমাধ্যম
  9. চাকরি
  10. জাতীয়
  11. ধর্ম
  12. নির্বাচন
  13. প্রবাসের খবর
  14. ফিচার
  15. বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
Xrovertourism rovaar ad বিজ্ঞাপন
আজকের সর্বশেষ সবখবর
  • শেয়ার করুন-

  • Xrovertourism rovaar ad বিজ্ঞাপন
  • একাদশ শ্রেণির ছাত্রীকে নিয়ে পালালেন হিন্দু প্রভাষক

    Link Copied!

    দুই স্ত্রী তালাক দিয়ে চলে যাওয়ার পর একা হয়ে যায় শিক্ষক ত্রিদীপ পাটোয়ারী। পরে এক-সন্তানকে নীজ ছোট বোনের কাছে নোয়াখালীর মাইজদি শহরে রেখে চাকুরীর সুবাধে রায়পুর শহরে ভাড়া বাসায় থাকেন। চার আগে রায়পুরের বাসা ছেড়ে লক্ষ্মীপুর শহরের শাখারি পাড়া এলাকায় ভাড়া বাসা নেন। অবশেষে নীজ কলেজের একাদশ শ্রেণিতে পড়ুয়া ছাত্রীকে নিয়ে পালানোর অভিযোগ উঠেছে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে।

    লক্ষ্মীপুরের রায়পুর রুস্তম আলী ডিগ্রী কলেজের ইংরেজি প্রভাষক ত্রীদিপ পাটোয়ারীর বিরুদ্ধে এই অভিযোগ উঠেছে।

    অভিযুক্ত প্রভাষক নোয়াখালীর চৌমুহনীর ধিরেন্দ্র পাটোয়ারীর ছোট ছেলে।

    মঙ্গলবার ( ৪ জুন) সকালে ওই কলেজে গেলে অধ্যক্ষ সাইফ উদ্দিন বিষয়টি এপ্রতিবেদককে জানান এবং রিপোট না করা অনুরোধ করেন।

    জানা গেছে, রায়পুর রুস্তম আলী ডিগ্রী কলেজের ইংরেজি প্রভাষক ত্রিদিপ পাটোয়ারীর কাছে প্রাইভেট পড়তো একই প্রতিষ্ঠানের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী পশ্চিম কাঞ্চনপুর গ্রামের দিনমজুর নাজিম উদ্দিনের মেয়ে নিশি আক্তার (১৫)। কলেজে বিনা টাকায় প্রাইভেট পড়ানোর সুযোগে ফুঁসলিয়ে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন ওই শিক্ষক। শ্রেণী পাঠদানে পর নিশিকে নিয়ে ব্যাস্ত থাকতো সে। এতে অন্য শিক্ষার্থীরা বাধা দিলে খুব বিরক্তি প্রকাশ করে ধমক দিয়ে পরিস্থিতি শান্ত রাখত।

    গত সোমবার সকালে কলেজে গেলে আর বাড়ি ফিরে আসেনি নিশি আক্তার। খোঁজা খুঁজির পরে মেয়েকে না পেয়ে নিশির বাবা তাদের সহপাঠীদের কাছে খোঁজ নিলে তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে শিক্ষক ত্রীদিপকে ফোন করেন। ত্রীদিপ তখন নিশিকে নিয়ে পালিয়ে গেলেও তাদের ফোন বন্ধ রয় জানান।

    গত মঙ্গলবার সকালে পুতুলের বাবা নাজির পন্ডিত বাদী হয়ে রায়পুর থানায় একটি নিখোঁজ সাধারণ ডায়েরি করেন।

    এ ব্যাপারে অভিযুক্ত প্রভাষক ত্রীদিপের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া গেছে।

    ছাত্রীর মা শাহিনুর বেগমের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘ কলেজের হিন্দু ইংরেজি প্রভাষক ত্রিদীপ কে আমি অনেক বিশ্বাস করতাম। টাকার জন্য আমার মেয়ে প্রাইভেট পড়তে পারতাম না। কিন্তু ত্রিদীপ মেয়েকে বিনা বেতনে পড়ানো জন্য নানানভাবে চাপসৃস্টি করতো। সে যে এতো বড় খারাপ, তা আমি জানতাম না। গত শীতের সময়ে কোন একদিন আমার বাড়ীতে আসলে তাকে দুপুরে ভাত খাইতে দিয়েছি। এ ঘটনায় আমার স্বামী এবং আমি মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছি।’

    রুস্তম আলী ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ সাইফ উদ্দিন বলেন, ‘প্রায় ৮ বছর ধরে ত্রিদীপ এই কলেজের ইংরেজী বিভাগে শিক্ষকতা করছেন। আগেও এক হিন্দু মেয়েসহ একাধিক ঘটনার জন্য কঠোর সতর্কতা করা হয়। আমি বিশ্বাসই করতে পারিনি যে, ত্রীদিব নিজ সন্তানতুল্য গরীব শিক্ষার্থীকে নিয়ে পালিয়েছেন। বিষয়টি জানার পরে থানা পুলিশ ও কলেজ ম্যানেজিং কমিটির সদস্যদের সঙ্গে কথা বলেছি। তার বিরুদ্ধে শিগগিরই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

    রায়পুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইয়াসিন ফারুখ মজুমদার বলেন, আমাদের কাছে একটি সাধারণ ডায়েরি করেছে মেয়ের বাবা। আমি তৎক্ষণাৎ তদন্তকারী কর্মকর্তা নিয়োগ করি এবং তদন্ত করে জানতে পারি শিক্ষক ওই ছাত্রীকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে তাকে নিয়ে পালিয়েছে। উক্ত ছাত্রীকে উদ্ধারের জন্য পুলিশ সার্বক্ষণিক তৎপর রয়েছে বলেও জানান তিনি।

    ৭ বছর আগে নোয়াখালির চৌমুহনীতে দুই বিয়ে করেন কলেজ শিক্ষক ত্রিদীপ পাটোয়ার । তার দুই ছেলে সন্তানও রয়েছে। -সন্তান থাকার পরেও তিনি তার প্রতিষ্ঠানের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ফুঁসলিয়ে নিয়ে পালিয়ে গেছেন।

    Share this...

    বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বে-আইনি।
    ঢাকা অফিসঃ ১৬৭/১২ টয়েনবি সার্কুলার রোড, মতিঝিল ঢাকা- ১০০০ আঞ্চলিক অফিস : উত্তর তেমুহনী সদর, লক্ষ্মীপুর ৩৭০০
    biggapon ad advertis বিজ্ঞাপন এ্যাড অ্যাডভার্টাইজ  
  • আমাদেরকে ফলো করুন…