লক্ষ্মীপুরে বছরের প্রথম দিনে বই পেয়ে আনন্দে মেতেছে শিক্ষার্থীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক :

বছরের প্রথম দিনেই লক্ষ্মীপুরে নতুন বইয়ের গন্ধে মাতোয়ারা প্রাথমিকের ২ লাখ ৩৩ হাজার শিক্ষার্থী।

শুক্রবার (১ জানুয়ারি) সকালে সদর উপজেলার উত্তর মজুপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নতুন বই পেয়ে আনন্দে মেতে উঠে শিশু শিক্ষার্থীরা। বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করে শিশুদেরকে সারিবদ্ধভাবে দাঁড় করিয়ে বই বিতরণ করা হয়। এসময় বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির পক্ষ থেকে শিক্ষার্থীদের মাঝে মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে।

বই বিতরণ কার্যক্রমে উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা পরিমল কুমার ঘোষ, জেলা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক মোজাম্মেল হায়দার মাসুম ভূঁইয়া, বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি নজরুল ইসলাম ভুলু ও বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হাছিনা আক্তার প্রমুখ।

জানা গেছে, প্রাক প্রাথমিক থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত উত্তর জয়পুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৩৪৮ জন শিক্ষার্থী অধ্যয়নরত। বছরের প্রথম দিন শিক্ষার্থীদের হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে বই তুলে দেওয়া হয়েছে। যারা আসেনি তাদেরকে পরবর্তীতে বই দেওয়া হবে।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সূত্র জানায়, লক্ষ্মীপুর সদর, রায়পুর, রামগঞ্জ, রামগতি ও কমলনগর উপজেলায় এবার প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের ১০ লাখ ১৯ হাজার ৪০০টি নতুন বই দেওয়ার কার্যক্রম শুরু হয়েছে। প্রাক প্রাথমিক থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত ২ লাখ ৩৩ হাজার শিক্ষার্থী এ বই পাবে। এছাড়া সদর ও রায়পুর উপজেলার ১৪৯ জন শিক্ষার্থীকে ইংলিশ মিডিয়ামের বই দেওয়া হয়েছে। এরমধ্যে প্রথম শ্রেণির ৩৭, দ্বিতীয় শ্রেণির ৩৪, তৃতীয় শ্রেণির ২৭, চতুর্থ শ্রেণির ২৬ ও পঞ্চম শ্রেণির ২৫ জন শিক্ষার্থী এ বই পাবে।

উত্তর মজুপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি নজরুল ইসলাম ভুলু বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির পাশাপাশি দেশে শিক্ষার হার বৃদ্ধি পেয়েছে। এ সরকার শিক্ষার্থীদের হাতে বিনামূল্যে নতুন বই তুলে দিচ্ছে। প্রতিটি বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। করোনাকালীন শিক্ষার্থীদেরকে পাঠদানে অভ্যস্ত রাখতে অনলাইন ক্লাস চালু করা হয়েছে।

সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা পরিমল কুমার ঘোষ জানান, সদরের ২৮৫টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ১০৬টি কিন্ডার গার্টেনের শিক্ষার্থীদের মাঝে ৩ লাখ ৮৬ হাজার বই বিতরণ কার্যক্রম শুরু হয়েছে। প্রথমদিন যারা বই পায়নি বিদ্যালয় থেকে তারা বই সংগ্রহ করতে পারবে।

লক্ষ্মীপুর জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মনছুর আলী চৌধুরী বলেন, শিক্ষার হার বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্যোগে কয়েক বছর ধরে শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ করা হচ্ছে। মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান করা হয়নি। বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ স্ব স্ব আয়োজনে বই বিতরণ করছে। বিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়া সকল শিক্ষার্থীকে নতুন বই দেওয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email