মাঠের পরীক্ষার আগে কাল করোনা পরীক্ষা দেবেন মুশফিকরা

আসন্ন বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে অংশ নেয়া পাঁচটি দলের ক্রিকেটার-কর্মকর্তা ও অন্যান্য অংশীজনদের করোনা পরীক্ষা আগামীকাল শুক্রবার অনুষ্ঠিত হবে। পরের দিন (শনিবার) থেকে হোটেলে জৈব-সুরক্ষা পরিবেশে সবাই প্রবেশ করবেন। আগামী ২৪ নভেম্বর থেকে শুরু হবে বহুল প্রত্যাশিত বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপ।

করোনা পরীক্ষায় যাদের রিপোর্ট নেগেটিভ আসবে তারাই জৈব-সুরক্ষা পরিবেশে প্রবেশ করবে। আর রিপোর্টে যাদের পজিটিভ আসবে, তাদের বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) ব্যবস্থাপনায় আইসোলেশনে রাখা হবে। বিসিবি ইতোমধ্যে খেলোয়াড় ও ম্যাচের কর্মকর্তাদের জন্য তিনটি ক্যাটাগরি তৈরি করেছে। ‘এ’ ক্যাটাগরিতে খেলোয়াড় ও ম্যাচ কর্মকর্তারা আছে। ‘বি’ ক্যাটগরিতে থাকছেন ব্রডকাস্টার ও ‘সি’ ক্যাটাগরিতে গ্রাউন্ডসম্যানরা।

বিসিবি তিনটি জায়গায় জৈব-সুরক্ষার ব্যবস্থা করেছে। হোটেল, স্টেডিয়াম ও মিরপুরের ক্রীড়া পল্লীতে খেলোয়াড়-কর্মকর্তা-সম্প্রচারক-গ্রাউন্ডসম্যান এবং অন্যান্যরা থাকবেন। টুর্নামেন্ট চলাকালীন একাডেমী ভবনের নিচতলা আইসোলেশন কেন্দ্র হিসাবে ব্যবহার হবে্ খেলোয়াড়রা হোটেল সোনারগাঁওয়ে থাকবেন এবং ব্রডকাস্টাররা থাকবেন লেকশোর হোটেলে এবং গ্রাউন্ডসম্যান এবং ক্লিনাররা ক্রীড়া পল্লীতে বা যেখানে আছেন সেখানেই থাকবেন।

আজ বিসিবির প্রধান চিকিৎসক ডাক্তার দেবাশীষ চৌধুরী জানান, ‘ক্রিকেটাররা ২১ শে নভেম্বর থেকে হোটেলে জৈব-সুরক্ষা পরিবেশে প্রবেশ করবে। তাই ২০ নভেম্বর আমরা করোনার পরীক্ষা করব। একাডেমির ভবনের নীচ তলা আইসোলেশন কেন্দ্র হিসাবে ব্যবহার করা হবে। দ্বিতীয় তলাটি অন্যান্য কার্যক্রমের জন্য ব্যবহৃত হবে।’

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপটি কোভিড-১৯এর মধ্যে দলকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে চাঙ্গা করতে বিসিবির উদ্যোগেরও একটি অংশ। এর আগে তিন দলকে নিয়ে সফলভাবে বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপ আয়োজন করেছে বিসিবি। এখন বঙ্গবন্ধু কাপটি আরও বড় আকারে অনুষ্ঠিত হবে। তবে জৈব-সুরক্ষা পরিবেশে বিপুল সংখ্যক মানুষকে পরিচালনা করা আরও কঠিন হবে।

Print Friendly, PDF & Email