শ্রীদেবীর সঙ্গে অভিনয় করতে ভয় পেতেন সালমান খান

ঢাকা: সালমান খান ভয় পেতেন স্বয়ং তাঁর নায়িকাকে! বলিউডের ‘দবং’ নায়ক রোম্যান্স করতে গিয়ে রীতিমত কুঁকড়ে পড়েছিলেন এক সময়। এমন অসম্ভব সম্ভব হল কার মহিমায়?

সময়টা ন’য়ের দশক। শোনা যায়, শ্রীদেবীর দাপটে একেবারে কাঁটা হয়ে থাকতেন সল্লুভাই। বলিউডের ‘চাঁদনী’ তখন সাফল্যের শীর্ষে। পরিচালকরা রীতিমত লাইন দিচ্ছেন তাঁর অভিনয়ের ডেট পাওয়ার জন্য। শ্রীদেবীর পারিশ্রমিকও তখন প্রায় কোটি টাকা যা তাঁর সমসাময়িক নায়িকাদের কাছে প্রায় আকাশকুসুম। সালমানও তখন নতুন। ধীরে ধীরে ইন্ডাস্ট্রিতে নিজের জমি শক্ত করছেন। এমনই সময় অফার এল নতুন ছবির। নায়িকা স্বয়ং শ্রীদেবী।

এমন সুযোগ ছাড়তে নারাজ ছিলেন সালমান। এক কথাতেই রাজি হয়ে যান ‘চাঁদনী’র সঙ্গে অনস্ক্রিন জুটি বাঁধতে। কিন্তু প্রেমের দৃশ্যে নায়কের মনে আর প্রেম কোথায়! তরুণ সালমানের মন জুড়ে তখন শুধু ভয় আর চিন্তা। কিন্তু অমন সুন্দরী নায়িকার সঙ্গে প্রেমের দৃশ্য পেয়ে উৎফুল্ল হওয়ার বদলে এত ভয় কেন?

পরবর্তীকালে এক সাক্ষাৎকারে সালমান জানিয়েছিলেন, শ্রীদেবীর চমৎকার ব্যক্তিত্ব ছবির বাকি সব চরিত্রকে ছাপিয়ে যেত। এমন কী সেই তালিকা থেকে বাদ পড়ত না স্বয়ং নায়ক। এ রকম একজন বলিষ্ঠও অভিনেত্রীর সঙ্গে প্রেমের দৃশ্যে অভিনয় করতে তাই কিছুটা ভয়েই ছিলেন সলমন।

তৎকালীন বেশিরভাগ ছবিতেই নায়ক হতেন সর্বেসর্বা। নায়িকার ভূমিকা সে ক্ষেত্রে কিছুটা হলেও কম থাকত। তবে শ্রীদেবী ছিলেন ব্যতিক্রমী। তাঁর অভিনয় দক্ষতা এবং ব্যক্তিত্ব ছবিকে নিয়ে যেত অন্য মাত্রায়। সেই জন্যই কি সালমানের মত অভিনেতাকে চাপে রাখতে পেরেছিলেন তিনি?

‘চন্দ্রমুখী’ এবং ‘চাঁদ কা টুকরা’ ছবিতে একসঙ্গে দেখা যায় এই জুটিকে। সেই সময় সহকর্মীকে ভয় পেলেও, এখন স্মৃতির পাতা উল্টে আবেগপ্রবণ সালমান। খবর: আনন্দবাজার পত্রিকা

Print Friendly, PDF & Email