ধানপাতায় শিশির বিন্দু, জানান দিচ্ছে শীতের

ঢাকা: হেমন্তেই বেড়েছে শীতের প্রকোপ। দেশের উত্তরে শীতের আগমনী বার্তা জানান দিচ্ছে প্রকৃতি। হালকা কুয়াশায় ঢেকে রয়েছে রাস্ত-ঘাট। কচি ধানপাতায় জড়িয়ে রয়েছে মুক্তোর মতো শিশির বিন্দু। ঘাসের ওপরও ভোরের সূর্য কিরণে হালকা লালচে রঙয়ের ঝিলিক দিচ্ছে শিশির।

মাত্র দু’দিনের ব্যবধানে কমেছে তাপমাত্রা। দিনে গরম পড়লেও রাতে বেশ ঠাণ্ডা পড়ছে। ভোরে কুয়াশার সাথে হিমেল বাতাস জনজীবনে কাঁপুনি ধরাচ্ছে। তবে বেলা বাড়ার সাথে সাথে দেখা মিলছে সূর্যের।

দেশের সর্ব উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় টানা দুদিন ধরে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা বিরাজ করছে। গতকালের মতো আজও দেশের সর্বনিম্ন তামপাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে তেঁতুলিয়ায়, ১৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শনিবার সকালে রেকর্ড করা হয়েছিল ১৩ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

হিমালয়ের খুব কাছাকাছি হওয়ায় পঞ্চগড়ে আগেভাগেই উত্তর-পশ্চিম থেকে শীতল বায়ু প্রবেশ করে। ফলে হেমন্তেই শীত অনুভূত হচ্ছে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদেরা। সেই সঙ্গে গভীর রাত থেকে শুরু করে ভোর পর্যন্ত থাকছে কুয়াশা।

আগাম এই শীতে সবচেয়ে বেশি কষ্টে ছিন্নমূল মানুষেরা। দিন আর রাতের তাপমাত্রায় পরিবর্তনের ফলে দেখা দিয়েছে জ্বর-সর্দি কাশিসহ শিতজনিত রোগবালাই। এতে বেশি আক্রান্ত হচ্ছে শিশু আর বৃদ্ধরা। শীতের আগমনের এই সময়টিতে সবাইকেই বাড়তি সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা। রাস্তার ধুলাবালু থেকে রক্ষা পেতে অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। অন্য দিকে শিশুদের সর্দি-কাশির বিষয়েও বাবা-মাকে বাড়তি পরিচর্যার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

এ সপ্তাহেই পুরোদমে শীত জেঁকে বসবে বলে ধারণা করছে আবহাওয়া অফিস। এ ছাড়া ভোর ও রাতে কুয়াশার কারণে পথঘাটে হেডলাইট জ্বালিয়ে যানবাহন চলাচল করতে দেখা গেছে।

Print Friendly, PDF & Email