লক্ষ্মীপুরে ৩ ইউপিতে বিপুল ভোটে নৌকার জয়

নিজস্ব প্রতিবেদক :

লক্ষ্মীপুর ইউনিয়ন পরিষদ উপনির্বাচনে বিপুল ভোটে নৌকা প্রতিকের প্রার্থীরা জয়লাভ করেছেন। ১০নং চন্দ্রগঞ্জ ইউপির প্রথমিক ফলাফলে নৌকার প্রার্থী নুরুল আমিন ১৩ হাজার ৩শ’ ৩৩ ভোট পেয়ে বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্ধি তোফায়েল আহম্মেদ ধানের শীষ প্রতিক পেয়েছেন ১৬শ’ ২২ ভোট।

চন্দ্রগঞ্জ ইউপি উপনির্বাচনের পূর্নাঙ্গ ফলাফল দেখতে ক্লিক করুন

রায়পুর ৬নং কেরোয়া ইউপিতে আওয়ামীলীগ মনোনিত চেয়ারম্যান প্রার্থী শাহিনুর বেগম রেখা নৌকা প্রতিক নিয়ে পেয়েছেন ১১ হাজার ৭৯ ভোট। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্ধি নজরুল ইসলাম ধানের শীষ প্রতিকে পেয়েছেন ৮শ’ ৫৫ ভোট। এছাড়া রামগঞ্জ উপজেলার ইছাপুর ইউনিয়নে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন শাহনাজ আক্তার।

রায়পুর কেরোয়া ইউপি উপনির্বাচনের পূর্নাঙ্গ ফলাফল দেখতে ক্লিক করুন

আজ (২০ অক্টোবর) মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে ৫ টা পর্যন্ত লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার চন্দ্রগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ ও রায়পুর উপজেলার কেরোয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনের ভোট গ্রহণ চলে। অন্যদিকে সদরের ভবানীগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের ৯নং ওয়ার্ড ও কমলনগর উপজেলার চরকাদিরিয়া ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি সদস্য পদে ২৭টি কেন্দ্রে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া রামগঞ্জ উপজেলার ইছাপুর ইউনিয়নে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন শাহনাজ আক্তার।

এদিকে ভোটগ্রহণের শুরুতে নির্বাচনী শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও বিএনপির কর্মীদের উপর হামলার অভিযোগ তোলেন সদর উপজেলার চন্দ্রগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী তোফায়েল আহম্মদ।

অপর দিকে নিজ এলাকার চন্দ্রগঞ্জ লতিফপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে ভোট দিতে এসে শান্তিপূর্ণ ভোটগ্রহণ হয়েছে বলে জানান জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি এম আলাউদ্দিন।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে জেলার সদর উপজেলার চন্দ্রগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম বাবুল, রায়পুর উপজেলার কেরোয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান এবং রামগঞ্জ উপজেলার ইছাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ মৃত্যুবরণ করেন। এরপরই উপনির্বাচনের মাধ্যমে এই তিনটি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদ পূরণের লক্ষ্যে কাজ শুরু করে নির্বাচন কমশিন।

Print Friendly, PDF & Email