তরুন উদ্যোক্তার হাত ধরে লক্ষ্মীপুর হবে বিজনেস এরিয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক :
চার লাখ তরুন-তরুনীকে উদ্যোক্তা হওয়ার টানা ১০০০ তম দিন ফ্রি প্রশিক্ষণ দিয়ে ইতিহাস গড়লে ‘নিজের বলার মত একটি গল্প ফাউন্ডেশন’ নামে একটি সংগঠন। অনলাইনের মাধ্যমে উদ্যোক্তা হওয়ার ১০টি বিষয়রে স্কিলস শেখানোর উপর প্রশিক্ষণ দেন সংগঠনিটর প্রতিষ্ঠাতা ইকবাল বাহার।
এ উপলক্ষ্যে (আজ) বুধবার বিকেলে লক্ষ্মীপুরের পৌর শহরের আবদুল গণি দৃষ্টিপ্রতিবন্দী হাফিজিয়া মাদ্রাসার হলরুমে ফিতা ও কেক কেটে ‘নিজের বলার মত একটি গল্প’র’ ১০০০ তম দিন উদ্যাপন করেন সংগঠনটির লক্ষ্মীপুর জেলার সদস্যরা।
কেক কাটা ও অলোচনা সভায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, লক্ষ্মীপুর তরুন হিতোশী সংঘের সভাপতি রুহুল আমিন মাষ্টার, লক্ষ্মীপুর স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদের সভাপতি একেএম মাহাবুবুর রশিদ, আবদুল গণি দৃষ্টিপ্রতিবন্ধি হাফিজিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মো. আবদুল গনি। নিজের বলার মত একটি গল্প ফাউন্ডেশনের লক্ষ্মীপুর জেলা এম্বাসেডর রিজয়ান হোসাইন অনুষ্ঠানের সঞ্চালনা করেন।
অনুষ্ঠানে বক্তারা জানান, ‘চাকুরী করবো না-চাকুরী দেব’ এ প্রতিপাদ্য বিষয়টি সংগঠনটির মূল উদ্দেশ্য। উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত হয়েও বেকার হয়ে রাস্তায় রাস্তায় ঘুরতে হয়। তার চেয়েই অল্পপুঁজি নিয়ে উদ্যোক্তা হয়ে নিজেই কর্মসংস্থানের সৃষ্টি করা সম্ভব। সেই লক্ষ্যে প্রশিক্ষনটিতে অংশগ্রহণ করে ইতোমধ্যে লক্ষ্মীপুরে ৪০জন উদ্যোক্তা সৃষ্টি হয়ে নিজেদের সাবলম্বী করে তুলেছেন। নিজের বলার মত একটি গল্প ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে উদ্যোক্তা সৃষ্টি করে আগামীতে লক্ষ্মীপুরকে বিজনেস এরিয়া হিসেবে গড়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন তারা।
প্রসঙ্গ, ফাউন্ডেশনটি দেশ-বিদেশের ৪ লাখ তরুণ-তরুণীকে ফ্রি প্রশিক্ষণ দিয়েছেন। প্রশিক্ষণ নিয়ে ইতিমধ্যে ৭ হাজার উদ্যোক্তা নিজেকে স্বাবলম্বী করতে সক্ষম হয়েছেন। এছাড়া ফাইন্ডেশনটি বিভিন্ন সময় ৩৫ হাজার বন্যা কবলিত ও করোনাকালে ৮ হাজার পরিবারকে সহযোগিতা করেছেন। রোপণ করেছেন ৩৫ হাজার গাছের চারা। ১৫ হাজার এতিম-অসহায় ও শিশু-বৃদ্ধদের খাবার ব্যবস্থা করেছেন। তাছাড়া স্বেচ্ছাসেবকদের মাধ্যমে ২০ হাজার ব্যাগ রক্তদান করেছেন।

Print Friendly, PDF & Email