ভূমি ব্যবস্থাপনা ডিজিটাল করতে ৩৩৮ কোটি খরচ অনুমোদন

সারাদেশে ডিজিটাল ভূমি জোনিং এবং মৌজা ও প্লটভিত্তিক ডাটাবেজ প্রণয়নের মাধ্যমে ভূমির প্রকৃতি অনুযায়ী বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করে মাঠ পর্যায়ে সুষ্ঠু ভূমি ব্যবস্থাপনা ও ভূমি সম্পদ সংরক্ষণ করা হবে। এজন্য ‘মৌজা ও প্লটভিত্তিক জাতীয় ডিজিটাল ভূমি জোনিং’ নামে একটি প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক)।

অনুমোদিত প্রকল্পটি সম্পূর্ণ সরকারি অর্থায়নে বাস্তবায়ন করা হবে। এতে খরচ হবে ৩৩৭ কোটি ৬০ লাখ ৭ হাজার টাকা।

ভূমির গুণাগুণ অনুযায়ী ভূমিকে প্লটওয়ারি কৃষি, আবাসন, বাণিজ্যিক, পর্যটন ও শিল্প উন্নয়ন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করে মৌজা ও প্লটভিত্তিক ডিজিটাল ভূমি জোনিং ম্যাপ ও ভূমি ব্যবহার পরিকল্পনা প্রণয়ন; মাঠ পর্যায়ে সুষ্ঠু ভূমি ব্যবস্থাপনার নিমিত্ত সারাদেশে মৌজা ও প্লটভিত্তিক ডাটাবেজ প্রণয়ন; জোনভিত্তিক ভূমি ব্যবহার সম্পর্কে প্রশিক্ষণ প্রদান; সাধারণ জনগণের সচেতনতা বৃদ্ধির নিমিত্ত প্রচার-প্রচারণা চালানো এবং ভূমি জোনিং বিষয়ক কার্যক্রম সচল রাখার জন্য ভূমি মন্ত্রণালয়ের অধীনে একটি পৃথক ইউনিট গঠন করাকে প্রকল্পের উদ্দেশ্য বলছে ভূমি মন্ত্রণালয়।

প্রকল্পের প্রধান কার্যক্রমগুলোর মধ্যে রয়েছে- ১ লাখ ৩৮ হাজার ৪১২টি মৌজা ম্যাপ সিট সংগ্রহ, ১ লাখ ৩৮ হাজার ৪১২টি মোজা ম্যাপ সিট স্ক্যানিং, ১ লাখ ৩৮ হাজার ৪১২টি মৌজা ম্যাপ সিট ডিজিটালাইজেশন, ১ লাখ ৩৮ হাজার ৪১২টি মৌজা ডাটাবেজ ক্রিয়েশন, ১ লাখ ৩৮ হাজার ৪১২টি এডিট প্লট চেকিং, ১ লাখ ৩৮ হাজার ৪১২টি জিওরেফারেন্সসিংসহ মৌজা ম্যাপ, ১ লাখ ৩৮ হাজার ৪১২টি এজ ম্যাচিং অব মৌজা ম্যাপ, ১ লাখ ৩৮ হাজার ৪১২সিট গ্রাউন্ড ট্রুথির/ফিল্ড চেচিং, চারটি হাই রেজুলেশন স্ক্যানার (আনুষঙ্গিক উপকরণসহ) কেনা, ৩০ কোটি খরচে ল্যান্ড ইউজ সার্ভে, ৬৫ কোটি খরচে রয়ালিটি (স্যাটেলাইট ইমেজ ব্যয়), সার্ভার অন্যান্য যন্ত্রণাংশসহ দুই সেট এবং ৩৬ জন পরামর্শক (১৮০৪ জনমাস) নিয়োগ ইত্যাদি।

Print Friendly, PDF & Email