দিনের মতো আলোকিত হচ্ছে লক্ষ্মীপুর-রায়পুর আঞ্চলিক মহাসড়ক

নিজস্ব প্রতিবেদক :
দিনের আলোর মতো রাতেও আলোকিত হচ্ছে লক্ষ্মীপুর-রায়পুর আঞ্চলিক মহাসড়কের ১৪ কিলোমিটার সড়ক। দুযোর্গ ব্যবস্থাপনা ত্রাণ মন্ত্রণালয় হতে কাবিটা প্রকল্পের মাধ্যমে ২০ লাখ টাকা ব্যয়ে সদর উপজেলার চন্দ্রগঞ্জ বাজার হতে জকসিন বাজার পর্যন্ত ৪০টি স্ট্রীট লাইট স্থাপনের মাধ্যমে আলোকিত হচ্ছে সড়কটি।
সোলার স্ট্রীট লাইট স্থাপনের ফলে রাতের বেলায় ওই সড়কে কমেছে চুরি, ছিনতাই। এছাড়া  দুর্ঘটনা রোধে কার্যকর ভূমিকা পালন করছে বাতিগুলো।  লক্ষ্মীপুর সদর আসনের এমপি একে এম শাহাজাহান কামাল বিগত ২০১৬-২০১৭ অর্থ বছরের কাবিটা প্রকল্প থেকে এই কাজ বাস্তবায়নের জন্য উদ্যোগ নেন।
সদর উপজেলা প্রকল্প কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ইটকলের মাধ্যমে সম্প্রতি ১৪ কিলোমিটার সড়কের পাশে ৪০টি স্ট্রিট লাইট স্থাপন করে। এতে করে দিনের বেলায় সূর্য থেকে তাপগ্রহণের মাধ্যমে রাতেই বাতি গুলো জ্বলতে থাকে।  এই প্রকল্পে ব্যয় হয়েছে ২০ লাখ টাকা।
সদর উপজেলার বাঙ্গা খাঁ ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য মিজানুর রহমান মিলু বলেন, লক্ষ্মীপুর-রায়পুর মহাসড়কের পাশে জকসিন বাজার পর্যন্ত সদর আসনের এমপি একে এম শাহাজাহান কামালের সহায়তায় এসব সোলার লাইট স্থাপন করা হয়েছে। এতে করে রাতের বেলায় সড়কের চলাচলাকারী পথচারীরা সুফল পাচ্ছে।
পাশাপাশি সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ও চুরি ছিনতাই রোধে সোলার লাইট গুলো কার্যকরী ভূমিকা পালন করছে।
লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) মোশারফ হোসেন বলেন, স্ট্রিট লাইট স্থাপন করা ছাড়াও দরিদ্র জনগোষ্ঠী ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, মসজিদ মাদ্রাসার জন্য একই অর্থ বছরে সদর উপজেলার ২১ টি ইউনিয়নে ৩ কোটি ১৩ লাখ ২৫ হাজার ১১১ টাকার সোলার প্যানেল স্থাপন করা করা হয়েছে।
Print Friendly, PDF & Email