লক্ষ্মীপুরে প্রাচীর ভেঙ্গে বিধবা নারীর বাড়ি দখলের চেষ্টা, প্রাণে হত্যার হুমকি

নিজস্ব প্রতিবেদক:
লক্ষ্মীপুরে দিনে দুপুরে হামলা চালিয়ে প্রাচীর দেয়াল ভেঙ্গে এক বিধবা নারীর বাড়ি দখলের চেষ্টা চালানোর অভিযোগ উঠেছে মো. জাহাঙ্গির আলম (৪৮) নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। এসময় বাঁধা দিলে ওই বিধবা নারী ও তার সন্তানকে প্রাণে হত্যার হুমকি দেয়া হয়। এঘটনায় বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট) সকালে অসহায় নারী লক্ষ্মীপুর সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেছেন।
ভুক্তভোগী বিধবা নারীর নাম হাসিনা আক্তার পান্না (৩৭)। তিনি লক্ষ্মীপুর পৌর ৭নং ওয়ার্ডস্থ বাঞ্চানগর গ্রামের হাজী আ্বদুল্লাহ মঞ্জিলের মৃত আবদুল আলীর স্ত্রী। অভিযুক্ত জাহাঙ্গির আলম পৌর ১০ নং ওয়ার্ডস্থ দক্ষিণ মজুপুর গ্রামের মৃত আবু ছিদ্দিকের ছেলে।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বুধবার (১২ আগস্ট) দুপুরে হঠাৎ ৪/৫জন লোক নিয়ে ওই বিধবা নারীর বাড়িতে হামলা চালায় মো. জাহাঙ্গির আলম। এসময় তারা বাড়ীর প্রাচীর দেয়াল ভাংচুর করে বাড়িতে প্রবেশ করে। কোন কারণ ছাড়াই বিধবা নারীকে উচ্ছেদ করে বাড়ি দখলের চেষ্টা করে হামলাকারী জাহাঙ্গির। এসময় বিধবা নারীর কিশোর ছেলে আজাদি হাসনাত ফারদিন (১৭) বাঁধা দিলে হামলাকারীরা তেড়ে এসে তাকে প্রাণে হত্যার হুমকি ধমকি দেয়। এক পর্যায়ে স্থানীয়রা উপস্থিত হলে ঘটনাস্থল থেকে চলে যায় তারা। এ ঘটনায় প্রাণের ভয়ে নিরাপত্তা হীনাতয় ভুগছে ওই বিধবা নারীর পরিবার।
ভুক্তভোগী নারী হাসিনা আক্তার পান্না জানান, কোন কারণ ছাড়াই জাহাঙ্গির বাড়ির প্রাচীর ভেঙ্গে হামলা চালিয়েছে। এতে আমার ২৫ হাজার টাকার ক্ষতিসাধন হয়েছে। প্রাণে হত্যার করে বাড়ি দখলের হুমকি দিয়ে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত। এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবী করেন তিনি।

অভিযোগের বিষয়ে বক্তব্য জানতে একাধিক বার চেষ্টা করেও মো. জাহাঙ্গির আলমের বক্তব্য জানা সম্ভব হয়নি।

এ ব্যাপারে সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) অলি উদ্দিন বলেন, হামলা ও দেয়াল ভাংচুরের ঘটনায় থানায় সাধারণ ডায়েরী করেছে ভুক্তভোগী পান্না। বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email