‘মৎস্য খাতকে আরও সমৃদ্ধ করতে সবাইকে কাজ করতে হবে’

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, দেশীয় পুষ্টির চাহিদা পূরণ করে অর্থনীতির চাকাকে সচল রাখতে মৎস্য খাতকে আরও সমৃদ্ধ করতে সংশ্লিষ্ট সবাইকে কাজ করতে হবে। মৎস্য খাতকে আরও উন্নত করতে বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি করে মৎস্য চাষীদের জীবনমান উন্নয়নের চেষ্টা অব্যাহত রাখতে হবে।জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০২০ উপলক্ষে আজ শনিবার জাতীয় সংসদ ভবন লেকে মাছের পোনা অবমুক্তকরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি মৎস্য চাষিদের কল্যাণ নিশ্চিত করতে প্রশিক্ষণ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলেও উল্লেখ করেন। চলমান করোনা পরিস্থিতির মাধ্যেও নিয়মিত কর্মকান্ডের অংশ হিসেবে এমন আয়োজনের জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও অধিদপ্তরকে ধন্যবাদ জানান স্পিকার।জাতীয় সংসদের সিনিয়র সচিব ড. জাফর আহমেদ খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া ও চিফ হুইপ নূর-ই- আলম চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।স্পিকার বলেন, প্রধানমন্ত্রী ইতোমধ্যে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহের উদ্বোধন করেছেন। তারই ধারাবাহিকতায় মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে এ কর্মসূচি পালন করা হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আজ বাংলাদেশ মিঠাপানির মাছ উৎপাদনে বিশ্বে চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে। নদীমাতৃক বাংলাদেশের বড় সম্পদ মাছের উৎপাদন আরো বৃদ্ধি করার মাধ্যমে অর্থনীতিকে আরো বেগবান করতে হবে। পরে স্পিকার সংসদ ভবন লেকে মৎস্য পোনা অবমুক্তকরণ করেন। সংসদ ভবন লেকে চার প্রজাতির (রুই, কাতলা, মৃগেল ও কালিবাউস) ৬ হাজার ৮৮০টি মাছের পোনা অবমুক্ত করা হয়। মৎস্য অধিদপ্তরের উদ্যোগে এ অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন মৎস্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কাজী শামস আফরোজ।অনুষ্ঠানে হুইপ ইকবালুর রহিম, মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য মোছলেম উদ্দিন আহমদ, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা ও সংসদ সচিবালয়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email