দুঃসময়ে মালিঙ্গাকে পাশে পেলেন মাদুশঙ্কা

ঢাকা: ওয়ানডে ক্রিকেটে অভিষেকটা বেশ স্মরণীয় করে রেখেছিলেন শ্রীলঙ্কার পেসার শেহান মাদুশঙ্কা। বাংলাদেশের বিপক্ষে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে হ্যাটট্রিক করেছিলেন তিনি। তবে সাম্প্রতিক এক কাণ্ডে এলোমেলো হয়ে গেছে তার ক্যারিয়ার।

মাদুশঙ্কা গত ২৩  মে ২.৭ গ্রাম কোকেনসহ ধরা পড়েন পুলিশের হাতে। তাকে সব ধরনের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ করে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড (এলএলসি)। তবে এই দুঃসময়ে কিংবদন্তি লঙ্কান পেসার লাসিথ মালিঙ্গাকে পাশে পেলেন তিনি।

শ্রীলঙ্কার একটি গণমাধ্যমে মালিঙ্গা বলেন, ভুল সবাই করে কিন্তু তাই বলে কোনো সম্ভবনাময়ী ক্রিকেটারের ক্যারিয়ার শেষ করে দেওয়া উচিত নয়। তাই আমার মতে মাদুশঙ্কাকে আরো একবার সুযোগ দেওয়া উচিত শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের।

মালিঙ্গা আরও বলেন, মাদুশঙ্কা দেশের জন্য এমন বিনিয়োগ যে কিনা দলের জন্য অমূল্য সম্পদ হতে পারে। কেন সে মাদক নিচ্ছে সেটা তো আগে আমাদের খুঁজে বের করতে হবে। ব্যাক্তিগত কোনো সমস্যা দূর করার জন্য সে এই কাজ করতে পারে, কিন্তু এটা তো সমস্যা সমধানের কোনো সঠিক পথ হলো না। তার আরও একবার সুযোগ পাওয়া উচিত।

তার বোলিংয়ের প্রসংশা করে মালিঙ্গা বলেন, সে একজন প্রতিভাবান বোলার এটা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই। নিজের প্রথম ম্যাচেই হ্যাটট্রিক করে সেটা বুঝিয়ে দিয়েছে। আমি কিন্তু এমন কিছু করতে পারিনি। ওর ইতিবাচক দিক হলো সে দ্রুতগতির বোলার, ভালো একজন ফিল্ডার এবং শেষের দিকে ভালো ব্যাটও করতে পারে। ২০২২ পর্যন্ত যদি বিশ্বকাপ পিছিয়ে যায়, আমাদের উচিত দ্রুত বল করতে পারে এমন কাউকে মূল্যায়ন করা।

মালিঙ্গা মনে করেন, শাস্তি হলেও মাদুশঙ্কার পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করা দেওয়া উচিত। তিনি বলেন, যারা মাদক সেবন করে, তারা এমনিতেই কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে যায়। তারা হয়তো চায় যে মাদক ছেড়ে দেই, কিন্তু আমাদের সমাজ ব্যবস্থা আসক্তি থেকে বের হয়ে আসার কাজটা কঠিন করে তোলে। ওর বয়স খুব কম তাই আমাদের উচিত ওর পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করে ওকে সঠিক পথ দেখানো।

Print Friendly, PDF & Email