লক্ষ্মীপুরে চাঁদার দাবীতে অস্ত্র নিয়ে প্রবাসীর বাড়িতে হামলা, আহত ৮, ভাংচুর ও লুটপাট 

নিজস্ব প্রতিবেদক:

লক্ষ্মীপুরে দাবীকৃত চাঁদার টাকা না পেয়ে এক প্রবাসীর বাড়িতে দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়েছে সন্ত্রাসীরা। এঘটনায় অন্তত ৮জনকে আহত হয়। এসময় সন্ত্রাসীরা বশতঘরে হামলা-ভাঙচুর চালিয়ে নগদ ও স্বর্ণালঙ্কারসহ দুইলক্ষ টাকার মালামাল লুটে নেয়। বুধবার (২৭মে) বিকেলে সদর উপজেলার চর রুহিতা ইউনিয়নের মুন্সী হাজী বাড়ির প্রবাসী আলমগীরের বশতঘরে এ হামলার ঘটনা ঘটে। আহতদের লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতাল সহ বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার(২৮মে) সকালে লক্ষ্মীপুর সদর থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে।
আহতরা হলেন, প্রবাসীর ভাই মহিন, সোহেল, বেলাল হোসেন, সিরাজ, ফজু মিয়া, কালা, সবুজ, ছকিনা ও আলতাফ হোসেন। আহতদের সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, চর রুহিতা গ্রামের মুন্সী হাজী বাড়ির আবুধাবী প্রবাসী আলমগীরের পরিবারের কাছে ৭ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী করে আসছিলো একই এলাকার নিশান ও তার সহযোগীরা। দাবীকৃত টাকার জন্য দুপুরে প্রবাসীর ভাই মহিনকে মোবাইল ফোনে ডেকে এনে মারধর করে নিশান। এরপর ফের বিকেলে নিশানের নেতৃত্বে লিটন, মাসুদ, নয়ন, কাদেরসহ ১৫/২০জনের সঙ্গবদ্ধ দল দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে প্রবাসীর বশতঘরে সন্ত্রাসী কায়দায় হামলা চালায়। এসময় সন্ত্রাসীরা বশতঘরের আসবাবপত্র ভাঙচুর করে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকারসহ দুইলক্ষ টাকার মালামাল লুটে নেয়। একপর্যায়ে বাঁধা দিতে গেলে সন্ত্রাসীদের হামলায় ওই পরিবারের অন্তত ৮জনকে আহত হয়। পরে স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করে।
প্রবাসীর মা শাহিদা বেগম ও বোন নিপু জানান, ৭ লাখ টাকা চাঁদার টাকা না দেয়ায় বাড়ি ঘরে হামলাা চালিয়ে লুটপাট করেছে। এঘটায় নিশানসহ জড়িতদের বিচার দাবী করেন তাারা।
লক্ষ্মীপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজুর রহমান মিয়া জানান, হামলার ঘটনায় অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত করে আইনগত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email