করোনা ‌‘কনট্যাক্ট ট্রেসিং’ টুল আনলো অ্যাপল-গুগল

আশেপাশে করোনা পজিটিভ ব্যক্তি আছে কিনা তা জানতে নির্দিষ্ট প্রযুক্তি আনলো বিশ্বখ্যাত দুই টেক জায়ান্ট অ্যাপল ও গুগল। কনট্যাক্ট ট্রেসিং করার এই প্রযুক্তির সহায়তায় তৈরি অ্যাপের মাধ্যমে জানা সম্ভব হবে কোনো ব্যক্তি কোভিড-১৯ আক্রান্ত কারো সংস্পর্শে বা কাছাকাছি গিয়েছেন কিনা।

আর এই প্রযুক্তির মাধ্যমে সরকারের জনস্বাস্থ্য দফতর তৈরি করতে পারবে মোবাইল অ্যাপ। তা মোবাইলে ডাউনলোড করতে হবে। যিনি এটি ডাউনলোড করবেন, তিনি কোনো করোনা পজিটিভ ব্যক্তির সংস্পর্শে এলে ওই অ্যাপ স্বয়ংক্রিয়ভাবে তা তাকে জানিয়ে দেবে।

গুগল ও অ্যাপল ওই সফটওয়্যারের নাম দিয়েছে ‘এক্সপোজার নোটিফিকেশন টুল’। অ্যাপলের অ্যাপ স্টোর এবং গুগল প্লে-স্টোর থেকে ওই অ্যাপটি ডাউনলোড করা যাবে। বুধবার প্রযুক্তিটি ছাড়ার ব্যাপারে ঘোষণা দিয়েছে প্রযুক্তি জায়ান্ট দুটি।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি ও দেশটির দৈনিক গার্ডিয়ানের অনলাইন প্রতিবেদন অনুযায়ী, শুরুতে এ প্রযুক্তিতে প্রবেশাধিকার দেওয়া হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের বেশ কয়েকটি অঙ্গরাজ্য ছাড়াও আরও ২২টি দেশকে। যদিও ওই দেশগুলোর নাম জানানো হয়নি সংস্থা দুটির পক্ষ থেকে।

যুক্তরাষ্ট্রের নর্থ ডাকোটা অঙ্গরাজ্যের গভর্নর ডাগ বারগাম এ নিয়ে বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম যে অঙ্গরাজ্যগুলো এই ‘এক্সপোজার নোটিফিকেশন টুল’ ব্যবহার করতে চলেছে, নর্থ ডাকোটা তার মধ্যে অন্যতম। এর সাহায্যে নাগরিকরা নিরাপদ থাকবেন।’

কনট্যাক্ট ট্রেসিং অ্যাপগুলো ব্লুটুথ প্রযুক্তি নির্ভর। মূলত ব্লুটুথ তরঙ্গের মাধ্যমেই নিজ কাজ করবে অ্যাপটি। নিজ প্রযুক্তির মাধ্যমে যাতে অধিকাংশ স্মার্টফোনে যাতে ব্লুটুথ সংযোগ চালু থাকে এবং তথ্য সংগ্রহ করা সম্ভব হয়, সে চেষ্টা করেছে অ্যাপল-গুগল।

এ প্রযুক্তি কোনো অ্যাপ নয়, সরকারের তৈরি কনট্যাক্ট ট্রেসিং অ্যাপের সঙ্গে এটি ব্যবহার করা যাবে। এর মাধ্যমে জানা যাবে, সংস্পর্শে আসা মানুষদের মধ্যে কারো করোনাভাইরাসের উপসর্গ দেখা গেছে কিনা বা সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের মধ্যে কারো পরবর্তীতে করোনাভাইরাসে পজিটিভ এসেছে কিনা।

Print Friendly, PDF & Email