‘মানুষের জীবন-জীবিকারক্ষায় সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়ে এগোচ্ছে সরকার’

তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, খেটে খাওয়া মানুষের জীবন ও জীবিকারক্ষার জন্য সুচিন্তিত ও সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়ে এগোচ্ছে সরকার।

বৃহস্পতিবার (১৪ মে) দুপুরে সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা বলেন।

‘লকডাউন খুলে দিয়ে সরকার ভুল করেছে’-বিএনপি’র এ মন্তব্যের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি নেতা মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, রুহুল কবির রিজভী এবং আরও কোনো কোনো নেতার বক্তব্যে মনে হয়, তাদের পরামর্শটা যদি ইউরোপ-আমেরিকা শুনতো, তাহলে তারাও এই বিপর্যয়ের হাত থেকে রক্ষা পেতো। তাদের কথায় মনে হয় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার চেয়েও বিএনপি নেতারা স্বাস্থ্য বিষয়ে বেশি জ্ঞান রাখেন- এ ধরনের হাস্যকর কথা তারা বলেছেন।’

বিএনপিনেতা রুহুল কবির রিজভী আওয়ামী লীগের ‘আমরা করোনার থেকেও শক্তিশালী’- এ মন্তব্যকে কটাক্ষ করার জবাবে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘আমাদের সাধারণ সম্পাদক এ কথাটি প্রতীকী অর্থে বলেছিলেন। অর্থাৎ সম্মিলিতভাবে যাতে আমরা সবাই জাতি-ধর্ম-বর্ণ-দল-মত নির্বিশেষে এই করোনা মোকাবিলা করি সেই অর্থেই কথাটি বলেছিলেন। সেই কথার অর্থ না বোঝা তাদের ভাষাজ্ঞানের অভাব। আমি আশা করবো, বিএনপি নেতারা এ কথার সঠিক অর্থ বুঝবেন।

‘বিএনপি নেতারা শুধু সমালোচনা করছেন, কিন্তু পৃথিবীর দিকে তাকাচ্ছেন না, কারণ তাদের এই সমালোচনার মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে সরকারের কর্মকাণ্ডকে প্রশ্নবিদ্ধ করা’ উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, আজকের এই পরিস্থিতিতে পৃথিবীর প্রায় সব দেশে সব দল একযোগে সরকারের সহযোগী হিসাবে একসঙ্গে কাজ করছে জনগণকে রক্ষা করার জন্য, এমনকি ভারতেও প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেসসহ কংগ্রেস নেতৃতাধীন জোট সরকারের সহায়তায় এগিয়ে এসেছে।

করোনা মোকাবিলায় মানুষের জন্য সরকারের বিভিন্ন সহায়তা কর্মসূচির বিবরণ তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, ‘দেশের এক তৃতীয়াংশের বেশি মানুষকে সরকারি সহায়তার আওতায় আনা হয়েছে। আজ প্রধানমন্ত্রী আরও ৫০ লাখ পরিবারকে এককালীন ২ হাজার ৫০০ টাকা করে সরাসরি পৌঁছে দেওয়ার কর্মসূচি উদ্বোধন করেছেন। এগুলো যুগান্তরকারী পদক্ষেপ।’

সাংবাদিক কবি ফখরে আলমের মৃত্যুতে তথ্যমন্ত্রীর শোক

দৈনিক কালের কণ্ঠের বিশেষ প্রতিনিধি ও কবি ফখরে আলমের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখপ্রকাশ করেছেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

তথ্যমন্ত্রী ফখরে আলমের দীর্ঘ ও অনুসন্ধিৎসু সাংবাদিকতার জীবন ও কাব্যপ্রতিভাকে শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করেন।

Print Friendly, PDF & Email