লক্ষ্মীপুরে এক খামারির ৪টি অস্ট্রেলিয়ান গরু চুরি, চন্দ্রগঞ্জ থানায় অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক :

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলায় জিয়াউর রহিম মাকসুদ নামে এক খামারির ৪টি অস্ট্রেলিয়ান গরু চুরি হয়েছে। আজ শনিবার (৯ মে) দিবাগত রাতে উপজেলার চন্দ্রগঞ্জ থানাধিন মান্দারী ইউনিয়নের মোহাম্মদনগর গ্রামে ঘটনাটি ঘটে। চুরি যাওয়া গরু গুলোর বর্তমান বাজারমূল্য প্রায় ১০ লাখ টাকা।

আজ দুপুরে গরু চুরির ঘটনায় চন্দ্রগঞ্জ থানায় অজ্ঞাতনামা চোরদের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ভুক্তভোগী খামারির ভাই জাহিদুর রহিম।

স্থানীয়রা জানায়, শনিবার দিবাগত রাতের কোনো এক সময় সঙ্গবদ্ধ চোরেরা ৪টি গুরু চুরি করে। ধারণা করা হচ্ছে, কৌশলে খামার থেকে গরু গুলো বের করার পর পিকআপ বা ছোট কোনো ট্রাকে তুলে নিয়ে পালিয়ে যায় চোরের দল।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত ২৪ এপ্রিল খামারি জিয়াউর রহিম মাকসুদের গরুর খামারটি ঘুর্ণিঝড়ে বিধ্বস্ত হয়। ফলে তার খামারের গরু গুলোকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয়া হয় এবং তিনি খামারটির অবকাঠামো পুনঃনির্মাণের কাজ শুরু করেন। খামারি মাকসুদের ৪টি গরু একই গ্রামের মীর বাড়ির মুন্সির গোয়ালঘরে রাখা হয়েছিল। সেখান থেকেই গরু গুলো চুরি হয়।

স্থানীয়রা বলছেন, করোনাভাইরাসে প্রাদুর্ভাব ছড়িয়ে পড়ার পর থেকেই চন্দ্রগঞ্জ থানাধিন মান্দারী ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় একাধিক চুরির ঘটনা ঘটেছে এবং তা ক্রমান্বয়ে বাড়ছে। ইতোমধ্যে মান্দারী মালেক ডিলারের ভাই খালেকের একটি, খানা বাড়ির সিরাজে একটি, নবী মাস্টারের একটি গন্ধব্যপুর পোদ্দার বাড়ি থেকে একটি গরু চুরি হলেও পুলিশি তৎপরতা বাড়েনি। এখন আবারও গরু চুরির ঘটনা ঘটলো। এ নিয়ে স্থানীয়রা আতঙ্ক ও উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। অন্যদিকে একসঙ্গে ৪টি মূল্যবান বিদেশী গরু হারিয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন খামারি মাকসুদ।

ভুক্তভোগী খামারি মাকসুদের ভাই জাহিদুর রহিম বলেন, গরু চুরির ঘটনায় অজ্ঞাতনামা চোরদের বিরুদ্ধে চন্দ্রগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। পুলিশি তৎপরতা বৃদ্ধির মাধ্যমে চোরদের আইনের আওতায় আনা এবং মানুষের জান-মালের সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দাবি জানান তিনি।

চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জসীম উদ্দীন জানান, গরু চুরির ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। শীঘ্রই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

শীর্ষ সংবাদ/আপ্র

Print Friendly, PDF & Email