আওয়ামী লীগের ত্রাণ কার্যক্রম মনিটরিংয়ে কেন্দ্রীয় নেতারা

করোনায় কর্মহীন হয়ে পড়া অসহায় মানুষের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ করছেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা।

শনিবার বিকালে ধানমন্ডি দলীয় সভানেত্রীর কার্যালয়ে বসে কেন্দ্রীয় নেতারা বিভিন্ন জেলা-উপজেলায় আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীদের প্রয়োজনীয় দিক-নির্দেশনা প্রদান করেন। খাদ্য সামগ্রী বিতরণ এবং কৃষকদের পাশে থেকে ধান কেটে ঘরে তুলে দেওয়া অব্যাহত রাখার নিদের্শনা দেওয়া হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, এস এম কামাল হোসেন, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস এমপি, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, উপ-দপ্তর সম্পাদক সায়েম খান।

এ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা অনুযায়ী বর্তমান পরিস্থিতিতে দলীয় নেতা-কর্মীদের সব সময় জনগণের পাশে থেকে মানবিক সংকট মোকাবিলায় কার্যকর ভূমিকা পালনের আহ্বান জানিয়েছি। একই সাথে সারাদেশে সরকারিভাবে বিতরণকৃত ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে যাতে কোনো ধরনের অনিয়ম না হয় এবং খেটে খাওয়া কর্মহীন অসহায় মানুষের ঘরে ঘরে যাতে খাদ্য সহায়তা পৌঁছায় সে ব্যাপারে সকলকে সহায়ক ভূমিকা পালনের আহ্বান জানানো হয়।

দলের সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক বলেন, সারাদেশে ত্রাণ কার্যক্রম মনিটরিং করার ধারাবাহিকতায় আমরা দলীয় সভানেত্রীর কার্যালয়ে বসি। সারাদেশে নেতাকর্মীদের সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলে দলীয় সভানেত্রীর বার্তা পৌঁছে দিচ্ছি।

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল হোসেন বলেন, সরকারের পাশাপাশি আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম এবং ধান কেটে কৃষককে সহায়তা প্রদানের কার্যক্রম অব্যাহত রাখার অনুরোধ জানানো হয়।

Print Friendly, PDF & Email