‘ভেঙে পড়েছিলাম, চিকিৎসকরা সাহস জুগিয়েছেন’

ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের তৃতীয় করোনা আক্রান্ত মানামী ঘোষ বলেছেন, স্বাস্থ্য দফতর ও চিকিৎসকরা মনোবল জুগিয়েছে বলেই করোনার সঙ্গে যুদ্ধে সফল হয়েছি। রবিবার অভিনেত্রী ও যাদবপুরের তৃণমূল সাংসদ মিমি চক্রবর্তীর সঙ্গে ইনস্টাগ্রামে একান্ত আলাপচারিতায় এ কথা বললেন তিনি।

মানামী বলেন, কভিড-১৯ নিয়ে অনেকে অনেক রকম কথা বলেছে। কিন্তু আসলে কেমন হয় করোনার সঙ্গে লড়াইয়ের এই সফর। মানুষকে উদ্বুদ্ধ করতে, অনুপ্রেরণা জোগাতেই এই উদ্যোগ নিয়েছিলেন মিমি।

মিমি আগেই জানিয়েছেন, মানামীর সাহসিকতায় তিনি উদ্বুদ্ধ। মনামীর অভিজ্ঞতা এবং টিপস পশ্চিমবঙ্গের মানুষকে এই মহামারী সম্পর্কে আরও সচেতন করবে বলেই বিশ্বাস করেন তিনি।

ভিডি্ও বার্তায় মানামী নিজের করোনা জয়ের কাহিনি সম্পর্কে জানান। তিনি বলেন, কথাটা শুনতে সোজা লাগলেও জার্নিটা খুব একটা সহজ ছিল না। ১৮ মার্চ এডিনবরা থেকে আমি কলকাতায় ফেরার বিমানে উঠি। ১৯ তারিখ কলকাতায় এসে পৌঁছাই এবং (বেলেঘাটা) আইডি হাসপাতালে গিয়ে ভর্তি হই পরীক্ষার জন্য। পরের দিন ২০ মার্চ আমাকে জানানো হয় আমার নমুনা পজিটিভ। সেদিন রাতে আমি প্রচণ্ড পরিমাণে ভেঙে পড়েছিলাম, চারিদিকে যা শুনছিলাম-তাতে আতঙ্কিত ছিলাম। পরের দিন স্বাস্থ্যভবণ, চিকিৎসক, নার্স সবাই আমাকে আশ্বস্ত করেছে। ১৪ দিন তারা আমার সঙ্গে ছিল,… এসে থেকে বাড়ির লোকের সঙ্গে আমি দেখা করতে পারিনি। অনেকটা মনোবল নিয়েই আমি এতদূর এসেছি।

Print Friendly, PDF & Email