মানবজাতির এই ভয়াল দুর্দিন কেটে যাক

একমত লোপাদি, এই লকডাউন চলাকালীন সমস্ত সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে এই ফ্রি-তে গান-কবিতা-নাচের অনুষ্ঠান দেখতে দেখতে মানুষের অভ্যাস হয়ে যাবে ফ্রি-তেই দেখার। লকডাউন শেষ হবার অনেক পরে কিন্তু শুরু হবে অনুষ্ঠানের পালা, কারণ সোশ্যাল গ্যাদারিং করতে মানুষ ভয় পাবে অনেকদিন। একা গায়কের নহে তো গান, যন্ত্রশিল্পী ও শব্দ প্রক্ষেপণকারী রা কি করবেন করোনা পরবর্তীকালে? কতদিন পরে তাদের কাজ হবে? ততদিনে তো মানুষ খালি গলা, তানপুরা বা হারমোনিয়াম বা গিটার বা দোতারা সহযোগে একাকী গায়কের গান শুনে শুনেই অভ্যস্ত। এবার অনুষ্ঠান শুরু হলে গায়ক গায়িকার কাছে অনুরোধ, বুঝতেই তো পারছেন, যা অবস্থা গেল, আপনি একা এসেই অনুষ্ঠান করে দিয়ে যান না, বাজেট তো নেই। আমরা এতদিন ধরে তো শুনলাম, কি যে ভাল লাগে সে বলার নয়। কি যে শান্তি!!!!!!!!!!!!! সত্যিই কি শান্তি?

শিল্পী ও শিল্প প্রকাশ চায়, প্রকাশের ভাষা চায়, কিন্তু সেটা সহজলভ্য করে দিলে কার ক্ষতি? গোটা শিল্পীকুলের ক্ষতি, সামগ্রিক ক্ষতি। একটা গোটা ইন্ডাস্ট্রির ক্ষতি। তার থেকে যে যা করছেন, সেটা পেইড ভিয়ুজ (paid views) করার ব্যবস্থা করুন না কোনোভাবে, যাতে মানুষ কিছু পে করে সেটা দেখতে পারেন। কোনও কিছুই তো ফ্রি নেই এই যুগে, আপনার এতদিনের অর্জিত শিক্ষা, যার জন্য অনেক অনেক সময়-পরিশ্রম-অর্থ-মনন ব্যয় করেছেন, সেটি বিনামূল্যে কেন বিলাবেন? মাসে-দু’মাসে একটা আধটা গান-কবিতা-বাজনা শোনালেন না হয়, কিন্তু আপনার যারা ভক্ত, তারা আপনারই থাকবে, কেউ ভুলে যাবে না, তাই ধৈর্য ধরুন। আস্থা রাখুন। নিজের পারফরম্যান্স কে পেইড করানোর ব্যবস্থা করুন। আর এই করোনাকালের পরবর্তী পরিবর্তনকে অনুধাবন করুন, সতর্ক হো’ন। সারা জীবনের পরিমাপে ছ’ মাস, একবছর কি খুব কিছু বেশি? একটু শান্ত হয়ে ভাবুন, অনেককিছুই কিন্তু বদলে যাবে, অনেক সমীকরণ নতুন পথ নেবে। একটু ভাবুন।

আশা করি কেউ দুঃখ পাবেন না। কারণ, ভালো আপনারই হবে, কথাগুলো যতই তেতো শোনাক না কেন। আমার উদ্দেশ্য কাউকে আঘাত করার নয়, বড় আঘাত যাতে কারোর গায়ে না লাগে তাই যা মনে হচ্ছে, বিশ্লেষণ করে বললাম। হ্যাঁ-তে হ্যাঁ মিলিয়ে জনপ্রিয়তা কেনার দায় আমার নেই। আমার ওপর রাগ হলেও, কোনোভাবে আমার কথা যদি সত্যিই কারোর কাজে লাগে, সেটাই প্রাপ্তি, আমার নয়, গোটা ইন্ডাস্ট্রির। ভালো থাকুন, সুরে থাকুন, সৃষ্টিতে থাকুন, রেওয়াজে থাকুন, ধ্যানে থাকুন, সর্বাংশে মঙ্গল হোক। সবার। সবার। মানবজাতির এই ভয়াল দুর্দিন কেটে যাক। অশ্রুবাষ্প সুদূরে মিলাক, যাক, যাক…

(ফেসবুক থেকে সংগৃহীত)

Print Friendly, PDF & Email