করোনায় মারা যাওয়া চিকিৎসকের দাফন হবে গ্রামের বাড়ি

করোনায় মারা যাওয়া সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারী অধ্যাপক ডা. মঈন উদ্দীনকে গ্রামের বাড়ি সুনামগঞ্জের ছাতক উপজলায় দাফন করা হবে।

বুধবার ভোরে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান ডা. মঈন উদ্দীন। দুপুরে তার মরদেহ নিয়ে ছাতকের উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন পরিবারের সদস্যরা।

রাতে ছাতকের উত্তর খুরমা ইউনিয়নের নাদামপুর গ্রামে বাড়ির পাশে দাফন করা হবে দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া প্রথম এই চিকিৎসককে।

ছাতক উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) তাপস শীল বলেন, ডা. মঈনের মরদেহ আসার বিষয়টি আমাদের নিশ্চিত করা হয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পক্ষ থেকে মরদেহ দাফনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।

গত ৫ এপ্রিল সিলেটে করোনাভাইরাসে প্রথম আক্রান্ত রোগী হিসেবে এই চিকিৎসককে শনাক্ত করা হয়। সেদিন রাতে রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) বরাত দিয়ে ওই চিকিৎসকের করোনা পজিটিভ পাওয়ার তথ্য জানান সিলেটের সিভিল সার্জন ডা. প্রেমানন্দ মণ্ডল।

৭ এপ্রিল রাতে শারীরিক অবস্থায় অবনতি হলে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বাসা থেকে ওই চিকিৎসককে সিলেট শহীদ শামসুদ্দিন হাসপাতালের আইসোলেশন সেন্টারে নেয়া হয়। প্রথমে হাসপাতালের আইসিইউতে নেয়া হলেও পরে কেবিনে নিয়ে আসা হয়। অক্সিজেন সাপোর্ট দিয়ে তার শ্বাস-প্রশ্বাস স্বাভাবিক রাখা হয়।

৮ এপ্রিল ঢাকায় পাঠানো হয় এই চিকিৎসককে। সেদিন বিকেল সাড়ে ৫টায় একটি বেসরকারি হাসপাতালের অ্যাম্বুলেন্সে করে ঢাকার উদ্দেশ্যে তাকে পাঠানো হয়। সাতদিন চিকিৎসাধীন থাকার পর বুধবার ভোরে তিনি মারা যান।

Print Friendly, PDF & Email