সম্পূর্ণ ও আংশিক লকডাউনে যেসব জেলা

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণরোধে দেশের বিভিন্ন জেলার কোথাও সম্পূর্ণ লকডাউন আবার কোথাওবা আংশিক লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার।

গত ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনাভাইরাস রোগী শনাক্ত হয়। শুরুর দিকে আক্রান্তের সংখ্যা কম থাকলেও ৫ এপ্রিলের পর থেকে লাফিয়ে লাফিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত অনলাইন হেলথ বুলেটিনে রোববার সর্বশেষ বলা হয়, ২৪ ঘণ্টায় রাজধানীসহ সারাদেশে নতুন করে ১৩৯ জন করানো রোগী শনাক্ত এবং করোনা আক্রান্ত তিনজন মারা গেছেন। এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৬২১ জন ও মৃতের সংখ্যা ৩৪ জনে দাঁড়িয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা থেকে শুরু করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও স্বাস্থ্য মহাপরিচালকসহ দেশের প্রখ্যাত স্বাস্থ্য ও রোগতত্ত্ব বিশেষজ্ঞরা সংক্রমণরোধে জনগণকে বাসায় অবস্থানের পরামর্শ দিচ্ছেন। করোনা সংক্রমণ যেন ছড়িয়ে পড়তে না পারে সেজন্য প্রয়োজন অনুযায়ী লকডাউন (নির্দিষ্ট এলাকা থেকে কেউ বের হতে ও ওই এলাকায় নতুন কেউ করে প্রবেশ করতে পারবে না) ঘোষণা করছে সরকার।

সম্পূর্ণভাবে লকডাউন করা এলাকাগুলো হলো- শেরপুর, কুমিল্লা, নারায়ণগঞ্জ ,কক্সবাজার ,গাজীপুর, গাইবান্ধা, খুলনা, কিশোরগঞ্জ, নোয়াখালী, জামালপুর, সিলেট, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, সাতক্ষীরা, রংপুর, চাঁদপুর ও নরসিংদী।

আংশিক লকডাউনের এলাকাগুলো হলো- চট্টগ্রাম, রাজশাহী, ময়মনসিংহ, মুন্সিগঞ্জ, চুয়াডাঙ্গা, রাজবাড়ী, হবিগঞ্জ, দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁও, মৌলভীবাজার, সিরাজগঞ্জ, নীলফামারী, লালমনিরহাট, পঞ্চগড়, বরগুনার আমতলী ও পটুয়াখালীর দুমকি।

Print Friendly, PDF & Email