লক্ষ্মীপুরে শিক্ষকের মৃত্যু : ১২ পরিবার লকডাউন

নিজস্ব প্রতিবেদক:
লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে করোনা ভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে ষাটোর্ধে এক শিক্ষকের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় ওই শিক্ষকের বাড়িসহ তিনটি বাড়ির ১২টি পরিবার লকডাউনে রাখা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (০৯এপ্রিল) বিকেলে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান বলে জানিয়েছেন আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ আনোয়ার হোসেন।

নিহত শিক্ষক উপজেলার হাজিরহাট ইউনিয়নের চরজাঙ্গালীয়া হাফিজিয়া মাদ্রাসা এলাকার বাসিন্দা এবং স্থানীয় সুফিয়া দারুল আমান ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার আরবী বিষয়ের সহকারী শিক্ষক।

ডাঃ আনোয়ার হোসেন জানান, নিহত ওই শিক্ষক দীর্ঘদিন জ্বর, সর্দি, কাশি ও শ্বাসকষ্ট ও ডায়বেটিসে ভুগছিলেন। বুধবার ডায়বেটিসের সঙ্গে শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে তাকে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বুধবার বিকেলে শ্বাসকষ্ট বেড়ে যাওয়ায় লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বৃহস্পতিবার বিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। মৃত শিক্ষকের শরীরে করোনার লক্ষণ আছে কিনা তা নিশ্চিত হওয়ার জন্য নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকসাস ডিজিজে (বিআইটিআইডি) পাঠানো হয়েছে।

এদিকে কমলনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ নুরুল আবছার জানান, এ ঘটনায় মৃত ওই শিক্ষকের বাড়িসহ তিনটি বাড়ির ১২টি পরিবার লকডাউনে রাখা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email