কড়াকড়ি হোক, বাড়াবাড়ি নয়, লকডাউন নিয়ে মমতা

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস প্রতিরোধে গত ২৪ মার্চ থেকে ভারতজুড়ে চলছে তিন সপ্তাহের লকডাউন। আগামী ১৪ এপ্রিল এই লকডাউন শেষ হওয়ার কথা থাকলেও তা বাড়তে পারে। দেশের প্রধান রাজনৈতিক দলগুলোর সংসদীয় নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বুধবার এমন ইঙ্গিত দিয়েছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

পরে বিকেলে সাংবাদিকদের সঙ্গে বৈঠক করে লকডাউনের মধ্যে সাধারণ মানুষের যাতে অসুবিধা না হয়, তা দেখার আহ্বান জানান পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। তিনি বলেন, ‘‘কড়াকড়ি হোক, কিন্তু বাড়াবাড়ি যেন না হয়।’’

দেশের প্রধান রাজনৈতিক দলের সংসদীয় দলনেতাদের সঙ্গে এ দিন ভিডিও কনফারেন্সে বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সেই বৈঠকে লকডাউন ১৪ এপ্রিলের পরেও বাড়ানোর ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি।

সে বিষয়ে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি বলেন, ‘‘লকডাউন নিয়ে আমরা তো কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারি না। কেন্দ্র যেভাবে বলবে, সেভাবেই আমরা চলব। কেন্দ্র নির্দিষ্ট করে কিছু বললে, তবেই আমরা এ বিষয়ে বলতে পারব। তবে লকডাউনের সময় যাতে সাধারণ মানুষের কোনো সমস্যা না হয়, তাও দেখতে হবে। কড়াকড়ি হোক, কিন্তু বাড়াবাড়ি যেন না হয়।’’

তিনি আরও বলেন, ‘‘১৯ মে পর্যন্ত সময় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের এই সময়ের মধ্যে খুব সতর্ক থাকতে হবে।’’

কিন্তু নির্দিষ্ট ওই তারিখটির কথা কেন বললেন? সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে মমতা বলেন, ‘‘সারা বিশ্বের বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ৪৯ দিন লকডাউন করলে করোনার বিরুদ্ধে ভাল সাফল্য পাওয়া যায়। সেই হিসেবেই ১৯ মে-র কথা বলেছি।’’

Print Friendly, PDF & Email