কাল মন্ত্রিসভার বৈঠক বসছে

আগামীকাল সোমবার গণভবনে মন্ত্রিসভার বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটিতে গত ৩০ মার্চ মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠক না হলেও সোমবারের বৈঠকটি হবে। বৈঠকে করোনা বিষয়ে নতুন কোনো সিদ্ধান্ত আসতে পারে। বৈঠকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব অতিরিক্ত সচিব (মন্ত্রিসভা ও রিপোর্ট) আব্দুল বারিক। করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের কারণে সরকারি ছুটি চলছে। এর মধ্যে হতে যাওয়া মন্ত্রিসভার বৈঠকটি বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে বলে সরকারের দায়িত্বশীলরা মনে করছেন।

সূত্র বলছে, বৈঠকে সাম্প্রতিক করোনাভাইরাস থেকে জনগণকে নিরাপদ রাখা ও দেশের ভবিষ্যত কর্মপরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা হতে পারে। তবে অন্যান্য সময়ের চেয়ে এ বৈঠক সংক্ষিপ্ত হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সোমবার সকাল ১১টায়  বৈঠক শুরু হবে। কয়েকজন সিনিয়র মন্ত্রী ও সচিব সভায় উপস্থিত থাকবেন।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব অতিরিক্ত সচিব (মন্ত্রিসভা ও রিপোর্ট) আব্দুল বারিক বলেন, সাধারণত প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অথবা সচিবালয়ের মন্ত্রিপরিষদ কক্ষে মন্ত্রিসভার বৈঠক হলেও সোমবারের বৈঠকটি প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে হবে। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের এক কর্মকর্তা জানান, সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করেই বৈঠকে মন্ত্রীদের বসার ব্যবস্থা করা হবে।

এর আগে ২৩ মার্চ মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকটি হয়নি। মুজিববর্ষ উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ২২-২৩ মার্চ সংসদের বিশেষ অধিবেশন আহ্বান করায় সেদিন মন্ত্রিসভা বৈঠকের সূচিও রাখা হয়নি। তবে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ বাড়তে থাকায় ওই বৈঠকের দুদিন আগে সংসদের বিশেষ অধিবেশন স্থগিত করা হয়। এরপর সরকার ২৬ মার্চ থেকে সব অফিস আদালত এবং যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দিয়ে সবাইকে বাড়িতে থাকার নির্দেশ দেয়।

সরকার ঘোষিত ওই ‘সাধারণ ছুটির’ মধ্যে গত ৩০ মার্চ মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠক হয়নি। সাধারণত প্রতি সোমবার মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠক হয়। প্রধানমন্ত্রী দেশের বাইরে থাকলে মন্ত্রিসভার বৈঠক হয় না। এছাড়া প্রধানমন্ত্রী চাইলে যে কোনো সময় মন্ত্রিসভার বিশেষ বৈঠক আহ্বান করতে পারেন।

Print Friendly, PDF & Email