করোনার হানায় ভারতে বেড়েই চলেছে মৃতের সংখ্যা

ভারতে করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। দেশটিতে আরো একজন নিহত হয়েছেন করোনায় আক্রান্ত হয়ে। সোমবার রাতে মুম্বাইয়ের একটি হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত বৃদ্ধের মৃত্যু হয়। এই নিয়ে ভারতে করোনার মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১২ জনে।

ভারতের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, ৬৫ বছর বয়সী ওই বৃদ্ধ আহমেদাবাদের বাসিন্দা। গত ১৫ মার্চ সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে তিনি ভারতে ফিরেছিলেন। তারপর ২০ মার্চ আহমেদাবাদ থেকে মুম্বাই যান। তারপরই তার শরীরে করোনার উপসর্গ ফুটে ওঠে। তড়িঘড়ি ওই বৃদ্ধকে মুম্বাইয়ের কস্তুরবা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই সোমবার রাতে তার মৃত্যু হয়।

এদিকে, মহারাষ্ট্রে এই নিয়ে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। এর আগে মুম্বাই ও পুনেতে দুই ব্যক্তির মৃত্যু হয়। এছাড়া পঞ্জাব, কর্নাটক, হিমাচল প্রদেশ ও পশ্চিমবঙ্গেও মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। গোটা ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা ৫০০ ছাড়িয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে নতুন ১৬৬ জনের দেহে করোনার জীবাণু মিলেছে।

ভারতে করোনা যুদ্ধে নয়া অস্ত্রপ্রয়োগ শুরু হলো সোমবার থেকে। দেশটির ৭৫ জেলায় শুরু হয়েছে লকডাউন। দিন দিন যে হারে ভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ছে, তাতে স্টেজ- থ্রি বা গোষ্ঠী সংক্রমণে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এই পর্যায়ে তা রুখে দিতেই লকডাউনের সিদ্ধান্ত প্রশাসনের। বন্ধ ট্রেন পরিষেবাসহ গণপরিবহন। তবে এই সময়ের মধ্যে অত্যাবশ্যকীয় পরিষেবা, যেমন-বাজার, ওষুধপত্র, দুধ, পানি সবই মিলবে। খোলা থাকবে হাসপাতাল, মিলবে অন্যান্য স্বাস্থ্য পরিষেবাও।

লকডাউনের বাইরে থাকবে সংবাদমাধ্যম। এরই মধ্যে রাজ্যে প্রথম করোনার বলি দমদমের এক বৃদ্ধ। পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে তারই মধ্যে। এরাজ্যে সাত জনের শরীরে মিলেছে করোনার জীবাণু।

Print Friendly, PDF & Email