লক্ষ্মীপুরে থানা গুলোতে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা

নিজস্ব প্রতিবেদক :
করোনা ভাইরাসের ঝুঁকি এড়াতে জেলার থানা গুলোতে সেবা প্রার্থী মানুষের মাঝে ভাইরাসের বিস্তার না ঘটে এই জন্য থানা গুলোর প্রবেশ মুখে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। জেলা পুলিশ সুপার ড. এ এইচ এম কামরুজ্জামান পিপিএম (সেবা) এর নির্দেশে থানায় সচেতনতার লক্ষে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় লক্ষ্মীপুর সদর থানা,চন্দ্রগঞ্জ,রামগঞ্জ,রায়পুর,কমলনগর,ও রামগতি থানায় হ্যান্ড স্যানিটাইজেশনের ব্যবস্থা করা হয়। সেবা প্রার্থীদের দেখা যায় হাত মুখ দুয়ে থানায় প্রবেশ করতে। এতে খুশি থানায় সেবা প্রার্থীরা । থানায় কর্মরত পুলিশের সকল সদস্যরা বলছে উদ্দ্যেগটা খুব ভালো হয়েছে। আমরা বাহিরে থেকে ডিউটি করে এসে জীবানুমুক্ত করে থানায় প্রবেশ করতে পারছি এবং সেবা প্রার্থীদের সেবা দিতে পারছি।

সদর থানায় সেবা নিতে আসা চর রমনী মোহনের আসলাম শেখ বলেন থানায় ডুকতে দেখি সাইবোর্ডে হাত মুখ দোয়ার ব্যবস্থা করেছে তাই হাত মুখ দুয়ে থানায় ডুকি নিজেরা নিরাপদ থাকি অন্যদেরকেও নিরাপদ রাখি।

লক্ষ্মীপুর সদর থানা অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) একেএম আজিজুর রহমান মিয়া বলেন থানায় প্রতিদিন সেবা নিতে অনেক সেবা প্রার্থী আসে, তাদের জিবানুমুক্ত রাখতে এবং আমাদের পুলিশ সদস্যরা সহ সবাই যেন এই করোনা ভাইরাস থেকে মুক্ত থাকতে পারি সেই জন্য এই ব্যবস্থা করা হয়েছে।

রামগতি থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ সোলাইমান বলেন পুলিশ সুপার ড. এ এইচ এম কামরুজ্জামান পিপিএম (সেবা) এর নির্দেশে থানায় জন সচেতনতার লক্ষে জনসাধারনকে হাতমুখ ধুয়ে থানায় প্রবেশ করতে এই উদ্দ্যেগ গ্রহন করা হয়।

এদিকে জেলার প্রতিটি থানা,পৌর এলাকা ও ইউনিয়ন করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জন সচেতনতার লক্ষে পুলিশের লিফলেট,মাক্স বিতরন ও মাইকিং করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email