কুড়িগ্রামের ডিসি সুলতানা পারভীনকে প্রত্যাহার

গভীর রাতে এক সাংবাদিককে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে জেল-জরিমানা দেওয়ার ঘটনায় আলোচিত কুড়িগ্রামের জেলা প্রশাসক (ডিসি) সুলতানা পারভীনকে প্রত্যাহার করে আদেশ জারি করেছে সরকার।আজ সোমবার ওই আদেশে তাকে পরবর্তী পদায়নের জন্য জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে ন্যস্ত করা হয়েছে।

আলাদা আদেশে জনপ্রশাসনের উপসচিব মো. রেজাউল করিমকে কুড়িগ্রামের নতুন ডিসির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।এর আগে রবিবার এক আদেশে কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসকের কার্যায়ের তিনজন সহকারী কমিশনারকে প্রত্যাহার করে সরকার; যারা ওই ঘটনায় জড়িত ছিলেন।জেলা প্রশাসকের কার্যায়ের সিনিয়র সহকারী কমিশনার নাজিম উদ্দিন এবং সহকারী কমিশনার রিন্টু বিকাশ চাকমা ও এসএম রাহাতুল ইসলামকে সরিয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে ন্যস্ত করা হয় ওই আদেশে।উল্লেখ্য, গত শুক্রবার (১৩ মার্চ) মধ্যরাতে বাড়িতে হানা দিয়ে মারধর করে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় বাংলা ট্রিবিউনের কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি আরিফুল ইসলামকে। তার বাসায় আধা বোতল মদ ও দেড়শ গ্রাম গাঁজা পাওয়া গেছে বলে দাবি করা হয়। এর পর গভীর রাতে জেলা প্রশাসকের অফিসে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে এক বছরের দণ্ড দিয়ে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।রবিবার (১৫ মার্চ) দুপুরে জামিনে কারাগার থেকে মুক্তি পান সাংবাদিক আরিফুল ইসলাম।এ ঘটনায় দেশব্যাপী ব্যাপক সমালোচনা হলে রবিবার (১৫ মার্চ) জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন সাংবাদিকদের জানান, কুড়িগ্রামের ডিসি প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত হচ্ছে।

Print Friendly, PDF & Email