প্রধানমন্ত্রীর জাপান সফর স্থগিত

 দেশে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আসন্ন জাপান সফর স্থগিত করা হয়েছে। ৩০ মার্চ প্রধানমন্ত্রীর টোকিও যাওয়ার কথা ছিল।

সোমবার (৯ মার্চ) রাতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন সাংবাদিকদের এই তথ্য নিশ্চিত করেন। এর আগে রবিবার সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পররাষ্ট্র সচিব ও রাষ্ট্রাচার প্রধানকে ডেকে এ নির্দেশনা দেন।

এদিকে ঢাকায় আগামী ৩ মাস যেসব আন্তর্জাতিক ইভেন্ট আছে সেগুলোও পিছিয়ে দেওয়া হচ্ছে। যেগুলো পেছানো সম্ভব নয়, তা বাতিল করা হচ্ছে। গত রবিবার দেশে ৩ জন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হওয়ার ঘোষণার পর বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর প্যারেড গ্রাউন্ডের বর্ণাঢ্য উদ্বোধন অনুষ্ঠান স্থগিতের নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী। ব্যাপক জনসমাগম এড়িয়ে ১৭ মার্চ সীমিত আকারে অনুষ্ঠানটি হবে। পরে সুবিধামতো সময়ে উদ্বোধন অনুষ্ঠান করা হবে।

কূটনৈতিক সূত্র জানায়, ২২ ও ২৩ মার্চ ঢাকায় ডি-এইট শীর্ষ সম্মেলনের প্রস্তুতি বৈঠক ছিল। বৈঠকে অংশ নিতে সংস্থার সেক্রেটারি জেনারেলের ইস্তাম্বুল থেকে ঢাকা আসার কথা ছিল। বৈঠকটি স্থগিত করা হয়েছে। ১২ এপ্রিল ঢাকায় ওআইসি-ঢাকা ইয়ুথ ক্যাপিটালের উদ্বোধন হওয়ার কথা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সেটি উদ্বোধন করার কথা। এই ইভেন্টও স্থগিত হতে পারে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। ১ মার্চ রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় এই ইভেন্টের কাউন্টডাউনের উদ্বোধন করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন।

বাংলাদেশ, মিসর, নাইজেরিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ইরান, মালয়েশিয়া ও পাকিস্তানের জোট ডি-৮ শীর্ষ সম্মেলনের তারিখ ছিল ৩০ ও ৩১ মে। সেভাবেই প্রস্তুতি এগিয়ে নিচ্ছিল ঢাকা। ডি-৮ভুক্ত দেশগুলোর রাষ্ট্রপ্রধানদের আমন্ত্রণ জানানোর যে প্রক্রিয়া শুরু হয়েছিল তা স্থগিত করা হয়েছে বলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানিয়েছে। ফলে এ সম্মেলন পিছিয়ে যাচ্ছে।

ব্রুনাই দারুসালামের সুলতান হাসানাল বলকিইয়ার ১২-১৩ এপ্রিল ঢাকা সফরের কথা। ব্রুনাইর হাইকমিশনার হারিস বিন ওসমান রবিবার রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে সফর নিয়ে আলোচনা করেছেন। সফরে ব্রুনাইর সুলতানের রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে যাওয়ার কথা; কিন্তু করোনার কারণে শেষ পর্যন্ত তার সফরটি হবে কিনা সংশয় দেখা দিয়েছে। এ ছাড়া ঢাকায় ১২-১৪ মার্চ জাতিসংঘের ডেপুটি সেক্রেটারি জেনারেল আমিনা জে মোহাম্মদের সফর করার কথা রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email