বলিউডে তিক্ত অভিজ্ঞতা জানালেন জ্যাকলিন

শ্রীলঙ্কান বংশোদ্ভূত বলিউড অভিনেত্রী জ্যাকলিন ফার্নান্দেজ। ২০০৯ সালে হিন্দি সিনেমায় তার অভিষেক ঘটে। এরপর থেকে বলিপাড়ায় তাকে নিয়মিত দেখা যাচ্ছে।

তবে যাত্রার শুরুটা সুখের ছিল না এই অভিনেত্রীর। সম্প্রতি একটি টক শো-তে ক্যারিয়ারের শুরুর দিকের তিক্ত অভিজ্ঞতা জানিয়েছেন তিনি।

জ্যাকলিন ফার্নান্দেজ বলেন, ১০ বছর আগের ঘটনা। বলিউডে আসার বিষয়টিই সবচেয়ে পাগলাটে সিদ্ধান্ত ছিল। কীভাবে সবার নজরে আসব এবং ভিন্ন কিছু করব বুঝতে পারছিলাম না। নিজের মতো করে কিছু করতে চাইছিলাম। অনেকেই আমাকে বলেছেন, ‘নাক সার্জারি করাও, নাম বদলে ফেল।’ আমি বলেছিলাম, এসবের সত্যিই কি কোনো প্রয়োজন আছে? এগুলো শুনে খুবই শান্ত এবং স্বাভাবিক থাকতাম। সত্যি বলতে তখন হাসতাম।

এই অভিনেত্রী আরো বলেন, আমার নাম পরিবর্তন করে ‘মুসকান’ রাখার জন্য বলা হয়। এজেন্সি থেকে যুক্তি দেয়া হয়- জ্যাকলিন ফার্নান্দেজ নাকি একটু বেশিই পশ্চিমা ঘরাণার নাম! এই নাম নিয়ে আমি নাকি ইন্ডাস্ট্রিতে টিকতে পারব না!

তবে নাম পরিবর্তন না করার ব্যাপারে আমি নিশ্চিত ছিলাম। অনেকে বলেছেন, আমার ভ্রু আরো কালো করা উচিত। আমার নাক ছোটবেলা থেকেই সবচেয়ে পছন্দের ছিল। কিন্তু কেউ একজন আমাকে নাক সার্জারি করতে বলেছিলেন! আমি তাদের কোনো কথায় কান দেইনি।

Print Friendly, PDF & Email