মশা যেন ভোট খেয়ে না ফেলে, মেয়রদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, মশা যেন ভোট খেয়ে না ফেলে। বৃহস্পতিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে মেয়রদের উদ্দেশে এমন মন্তব্য করেন তিনি।

শেখ হাসিনা বলেন, ঢাকায় যারা নির্বাচিত হয়েছেন তারা মনোযোগ দিয়ে কাজ করবেন। মশার উপদ্রব কমাবেন। ক্ষুদ্র প্রাণী হলেও মশা কিন্তু খুবই শক্তিশালী। মশাকে নিয়ন্ত্রণে রাখবেন। তা না হলে মশা কিন্তু আপনার ভোট খেয়ে ফেলবে।

তিনি দুই মেয়রকে সবার জনপ্রতিনিধি হয়ে কাজ করার আহ্বান জানান। বলেন, যারা ভোট দিয়েছে, আর যারা দেয়নি আপনারা সবার মেয়র। সবার জন্য কাজ করতে হবে।

তিনি বলেন, একটা কথা মনে রাখবেন, কেউ আপনাকে ভোট দিয়েছে, আবার কেউ আপনাকে ভোট দেয়নি। যখন আপনি নির্বাচিত হয়েছেন, তখন মনে করবেন আপনি সবার প্রতিনিধি। এটিই গণতন্ত্রের নিয়ম। এটি মাথায় রেখে সবার উন্নয়নে আপনাকে কাজ করতে হবে। কেউ যেন বঞ্চিত না হয়।

শেখ হাসিনা আরো বলেন, কাজের ক্ষেত্রে কোনোরকম দুর্নীতি বরদাশত করা হবে না। এর পরও যদি কেউ দুর্নীতি করে, কোনো মুখ চাওয়া-চাওয়ি হবে না। সে যেই হোক, আমি কিন্তু কোনো ছাড় দেব না।

এ সময় তিনি বলেন, স্থানীয় সরকারগুলোকে আমরা আরও শক্তিশালী করতে চাই। সেখানে পর্যাপ্ত পরিমাণ বাজেট দেয়া হচ্ছে। উন্নয়নের জন্য আমরা শুধু শহর নয়, গ্রামের উন্নয়ন করতে চাই। এ জন্য আমরা আলাদা আলাদা বাজেট ঘোষণা করছি।

এদিকে, জনসেবা ঠিকমতো করার নির্দেশ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা ঢাকার উন্নয়নে মেগাপ্রকল্প গ্রহণ করেছি। সেই প্রকল্প আপনারা বাস্তবায়ন করবেন। এসব প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে গিয়ে কেউ যেন দুর্নীতি না করেন। কারণ আমরা দুর্নীতি, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছি। কেউ যদি দুর্নীতি করেন তাকে কিন্তু আমি ছাড়ব না। জনগণ যেন আপনাদের সেবা থেকে বঞ্চিত না হয়। মনে রাখবেন, জনগণ আপনাকে ভোট দিয়েছে সেবা করার জন্য।

এর আগে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস ও উত্তর সিটি সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলামকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার কার্যালয়ের শাপলা হলে শপথবাক্য পাঠ করান।

শপথ অনুষ্ঠানে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম দুই সিটি করপোরেশনের সাধারণ ওয়ার্ড ও সংরক্ষিত নারী আসনের কাউন্সিলরদের শপথবাক্য পাঠ করান।

গেল ১ ফেব্রুয়ারি ডিএসসিসি ও ডিএনসিসি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস ও আতিকুল ইসলাম পরবর্তী পাঁচ বছরের জন্য মেয়র নির্বাচিত হন।

Print Friendly, PDF & Email