হঠাৎ ওয়ানডে দলে ডাক পেয়ে অবাক শান্ত

হঠাৎ ওয়ানডে দলে সুযোগ পাওয়ার কথা শুনে অবাক শান্ত। জাতীয় দলের রাডারে তিনি অনেক দিন ধরেই ছিলেন। ১৯ বছর বয়সে অভিষেকও হয়ে যায়। দেশের হয়ে খেলেছেন তিন ফরমেটেই। কিন্তু যেভাবে সুযোগ পেয়েছেন, সেভাবে কাজে লাগাতে পারেননি নাজমুল হোসেন শান্ত। তিন ফরমেটে অভিষেক হওয়ার পরও শান্ত তাই জাতীয় দলে ছিলেন অনিয়মিত।

দীর্ঘদিন পর টেস্ট দলে জায়গা ফিরে পেয়েছেন, টি-টোয়েন্টিতেও খেলেছেন গত বছর। তবে সর্বশেষ ওয়ানডে খেলেছেন সেই ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে। এবার সেই ওয়ানডে ফরমেটেও জায়গা ফিরে পেলেন শান্ত। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আসন্ন সিরিজে ডাক পেয়েছেন বাঁহাতি এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান। তবে অবাক করার বিষয় হলো, শান্ত নিজেই নাকি জানেন না ওয়ানডে দলে তাকে ডাকা হয়েছে। শান্ত অবশ্য না-ই জানতে পারেন।

কেননা জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট নিয়েই যে আজ ব্যস্ত ছিলেন তিনি, ব্যাটিংয়ে নেমে খেলেছেন ৭১ রানের ঝকঝকে এক ইনিংসও। দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু হওয়ার কিছু পরেই ওয়ানডে সিরিজের দল ঘোষণা করা হয়। শান্ত তখন হয়তো প্রেস কনফারেন্সে আসার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। দিন শেষে সংবাদ সম্মেলনে এসে ওয়ানডে দলে সুযোগ পাওয়ার কথা শুনে অবাক শান্ত।

তাই বলে ওঠলেন, ওয়ানডে দলের কথা যেটা বললেন, এখনই শুনলাম। আলহামদুলিল্লাহ, যদি সেখানেও সুযোগ পাই ম্যাচ খেলার, তাহলে ভালো করার চেষ্টা করব।

এদিকে, লম্বা সময় ধরেই জাতীয় দলের পরিকল্পনায় আছেন শান্ত। এই বিষয়টি সামনে আনা হলে বাঁহাতি গণমাধ্যমকে বলেন, এটা একটা ইতিবাচক দিক। সেটা প্রত্যেক ক্রিকেটারেরই থাকা উচিত। আমি মনে করি যখন জাতীয় দল থেকে বাদ পড়লাম, এরপরও আমি হাই পারফরম্যান্স, ‘এ’ দলে ছিলাম।

তিনি আরো বলেন, এটা আমার জন্য একটা ইতিবাচক দিক যে নির্বাচকেরা আমাকে ঐ জায়গাতে সুযোগ দিয়েছে। প্রত্যেক ক্রিকেটারেরই এমন সুযোগ পাওয়াটা গুরুত্বপূর্ণ বলে আমি মনে করি। আমি এখন ফিল করছি যে মাঠে যখন নামি তখন আগের চেয়ে বেশি রিল্যাক্স থাকি।

Print Friendly, PDF & Email