লক্ষ্মীপুরে চুরি হওয়া রিক্সা যেভাবে উদ্ধার করল পুলিশের এসআই

রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি :

মহিন উদ্দিন একটি রিক্সাকে অবলম্বন করে খুব কষ্টের মাঝে একটি প্রতিবন্ধী সন্তানসহ ৭ সদস্যের পরিবার লাগাম টেনে যাচ্ছে। হঠাৎ গত বছরের (১৩ ডিসেম্বর) বিকালে রামগঞ্জ থানা সামনে মুক্তিযোদ্ধা মঞ্চের পাশে রিক্সা নিয়ে দাঁড়ানো অবস্থায় রাজু (৩৫) নামের অপরিচিত এক ব্যক্তি তার কাছে এসে বিভিন্ন কথা ফাঁকে এ রিক্সাটি বাদ দিয়ে নতুন ছোট চাকার ব্যাটারী চালিত রিক্সা নেওয়ার পরামর্শ দেয়।

সরল মনে মহিন উদ্দিন তার সাথে এ রিক্সাটি বিক্রি করতে পারলে কিস্তিতে নতুন মডেলের একটি রিক্সা নেওয়ার ইচ্ছা কথা বলেন। এ সময় রাজু রিক্সাটির ১৮ হাজার টাকা দাম করে মোবাইল নম্বরটি নিয়ে যায়। পরেদিন মোবাইলে কথোপকথনের মাধ্যমে রামগঞ্জ চৌরাস্তায় ব্রীজে কাছে একত্রিত হয়। তখন চোর রাজু রিক্সাটির চালিয়ে দেখার কথা বলে রিক্সাটি নিয়ে পালিয়ে যায়। মহিন উদ্দিন পাগলের মত অনেক অপেক্ষা খোঁজাখুজি শেষে রামগঞ্জ থানা পুলিশের এসআই মহসিন চৌধুরীর পরামর্শে থানায় এসে অভিযোগ দায়ের করে।

এসআই মহসিন চৌধুরীে অভিযোগের আলোকে প্রায় দুইমাস অত্যান্ত কৌশলে চোর রাজুর সাথে চেষ্টা করে গতকাল (১১ ফেব্রুয়ারি) মঙ্গলবার তাঁকে আটক করে এবং রিক্সাটি উদ্ধার করে।

আজ (১২ফেব্রুয়ারি) বুধবার সকাল ১০টায় মহিন উদ্দিনকে তার চুরি হয়ে যাওয়া রিক্সাটি ফেরৎ দেন । এবং চোর রাজুকে বিজ্ঞ আদালতে সোর্পদ করেন।
রিক্সা চালক মহিন উদ্দিন পৌর সভা আউনখিল গ্রামের ফরিদ উদ্দিন পাটোয়ারী বাড়ির লনি মিয়ার ছেলে।

সাত সদস্য পরিবারের আয়ের একমাত্র সম্বল রিক্সাটি হারিয়ে চিন্তায় ভেঙ্গে পড়া মহিন উদ্দিন আজ পুলিশের সহযোগিতায় রিক্সাটি ফিরে পেয়ে তাঁর মুখে বাঁধভাঙ্গা হাঁসি ফুঁটে উঠে।