হয় বিয়ে, না হয় বিষপানে আত্মহত্যা!

বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন করছেন প্রেমিকা। হয় বিয়ে, না হয় প্রেমিকের বাড়িতেই বিষপানে আত্মহত্যা করবেন! এ নিয়ে গত দুই দিন ধরেই প্রেমিক জসিমের বাড়িতে কান্নাকাটি করে সময় পার করছেন প্রেমিকা ফাহিমা আক্তার।

চাঁদপুর সদর উপজেলার চান্দ্রা ইউপির ২নং ওয়ার্ড বাখরপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। তবে এখন পর্যন্ত স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান বা মেম্বাররা জানলেও এ বিষয়ে কোনো পদক্ষেপ নেননি।

প্রেমিক জসিম হোসেন একই গ্রামের কামাল হোসেন গাজীর ছেলে। সে ঢাকায় চাকরি করেন। অনশনরত প্রেমিকা ফাহিমা চান্দ্রা ইউপির ১নং ওয়ার্ড বাখরপুর গ্রামের ফজল সরদারের মেয়ে।

এ বিষয়ে সোমবার প্রেমিকা ফাহিমা জানান, ঢাকায় জসিমের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। সেখানে তারা একই ভবনে থাকতেন এবং তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে শারীরিক সম্পর্কও হয়।

পরে জসিম তাকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তাদের বাড়িতে আসতে বলে। সেই আশা নিয়ে ফাহিমা ঢাকা থেকে জসিমের বাড়িতে আসেন। এক পর্যায় জসিম তাকে বাড়িতে অবস্থান করতে বলে তার মোবাইল ফোন বন্ধ করে দেন। এখন তার সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হচ্ছে না।

চান্দ্রা ইউপি পরিষদের চেয়ারম্যান খান জাহান আলী কালু পাটওয়ারী বলেন, বিয়ের দাবি নিয়ে অনশনের বিষয়টি আমি জেনেছি। তবে এখনো আমার কাছে ছেলে বা মেয়ে পক্ষের কেউই অভিযোগ করেননি। এরপরও বিষয়টি চাঁদপুর মডেল থানায় তাদের পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো প্রয়োজন।

চাঁদপুর মডেল থানার ওসি মো. নাসিম উদ্দিন বলেন, কারো অনশনের বিষয় আমার জানা নেই। এছাড়া চেয়ারম্যান কিংবা স্থানীয় কেউ এখনো থানায় জানায়নি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email