ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত : তিন কিশোরকে তাবলিগে পাঠালেন এসিল্যান্ড

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে এক এসএসসি পরীক্ষার্থীকে উত্ত্যক্তের অভিযোগে আটক তিন কিশোরকে তাবলিগ জামাতে পাঠানো হয়েছে। বুধবার (৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক মির্জাপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (এসিল্যান্ড) মো. মঈনুল হক ভালো হওয়ার সুযোগ দিয়ে তাদের ছয়দিনের তাবলিগে পাঠান।

এরা হচ্ছে- উপজেলা সদরের পোষ্টকামুরী পূর্বপাড়া (সওদাগরপাড়া) গ্রামের শুভ মিয়া, আশিক ও জিহাদ। ভুক্তভোগী ওই শিক্ষার্থী মির্জাপুর পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, এই তিন কিশোর এসএসসি পরীক্ষার্থী ওই ছাত্রীকে স্কুলে যাওয়া আসার পথে নানাভাবে উত্ত্যক্ত করতো। ওই ছাত্রী মির্জাপুর সরকারি কলেজ কেন্দ্রে এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছে। গত সোমবার (৩ ফেব্রুয়ারি) এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রে যাওয়ার সময় তারা মেয়েটির গতিরোধ করে। এ সময় সে চিৎকার করলে তারা পালিয়ে যায়। পরে এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা মির্জাপুর থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। মঙ্গলবার (৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে পরীক্ষা কেন্দ্রের সামনে ওই তিন কিশোর ফের মেয়েটিকে উত্ত্যক্ত করতে আসলে আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা মির্জাপুর থানা পুলিশ তাদের আটক করে।

বুধবার দুপুরে আটক ওই তিন কিশোরকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক উপজেলা সহকারী কমিশনার (এসিল্যান্ড) মো. মঈনুল হকের কার্যালয়ে হাজির করা হলে বিচারক তাদেরকে সাজা না দিয়ে ভালো হওয়ার সুযোগ দিতে ছয়দিনের তাবলিগ জামাতে পাঠানোর ব্যবস্থা করেন।

এসিল্যান্ড মো. মঈনুল হক বলেন, তিন কিশোরই শিক্ষার্থী। তাই তাদের শিক্ষাজীবন সুরক্ষার জন্য সাজা না দিয়ে তাবলিগে পাঠানো হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email