নির্বাচন কমিশনকে আরও কঠোর হতে হবে

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ঢাকা দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে রাজনৈতিক দলগুলোর সমর্থকদের মধ্যে যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে তা বিচ্ছিন্ন। ওইসব ঘটনায় নির্বাচনে কোনো ধরনের প্রভাব পরবে না।

সোমবার (২৭ জানুয়ারি) দুপুরে সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

এসময় আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আছে উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, ‘যারা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সহিংসতা ঘটিয়েছে তা সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখার পর স্পষ্ট হবে।’ যারা দায়ী হবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

এদিকে, ভিডিও ফুটেজের সূত্র টেনে আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, ‘তাতে দেখা গেছে হামলা আগে বিএনপির পক্ষ থেকে করা হয়েছে। নির্বাচন কমিশন একটা নিরপেক্ষ তদন্ত করে দায়িদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারে।’

ইসি কমিশনার মাহবুব তালুকদার প্রসঙ্গ বলেন, ‘একজন ভিন্নমত পোষণ করতেই পারে। কমিশনের ভেতরে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নাই এমন আজগুবি মন্তব্য কেউ কখনো শোনেনি। তিনি বিএনপির শুরুর কথা বলছেন।’ সময় ওবায়দুল কাদের রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়েও কথা বলেছেন।

তিনি বলেন, ‘আন্তর্জাতিক আদালতে গাম্বিয়া মামলা করায় তা প্রশংসার দাবি রাখে। হেগের আদালতের অন্তর্বতীকালীন আদেশ বাংলাদেশের পক্ষে গেলেও চূড়ান্ত রায় হওয়ার পর মিয়ানমার কতটুকু মানবে এই রায় তা দেখার জন্য অপেক্ষা করতে হবে। ইতিমধ্যে মিয়ানমার গাম্বিয়ার আদালতের রায়ের নিরপেক্ষতা নিয়ে কথা বলা শুরু করেছেন এবং নিজেদের পক্ষ নিয়ে কথা বলছেন, তাই এখনই এই রায় নিয়ে বাংলাদেশের খুশি হওয়ার কারণ নাই।’

তবে রায় মানার জন্য বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক চাপ অব্যাহত রাখতে হবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

Print Friendly, PDF & Email