‘ইরাক না ছাড়লে মার্কিন সেনাদের ওপর হামলা হবে’

ইরাকের জাতীয় সংসদে মার্কিন সৈন্য প্রত্যাহারের প্রস্তাব পাস হলেও এ ব্যাপারে অনীহা প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্রের।

মার্কিন সরকার যদি ইরাক থেকে তাদের সামরিক বাহিনী সরিয়ে নিতে না চায় তাহলে তাদেরকে ভয়াবহ পরাজয়ের মুখে পড়তে হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ইরাকের সশস্ত্র স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন পপুলার মোবিলাইজেশন ইউনিট বা হাশদ আশ-শাবি এর রাজনৈতিক শাখার সদস্য মাহমুদ আর রুবাই।

বৃহস্পতিবার রাশিয়া টুডে-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে একথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘মার্কিন সেনা প্রত্যাহার করে নেওয়ার ব্যাপারে ইরাকের জাতীয় সংসদে সর্বসম্মতিক্রমে প্রস্তাব পাস হওয়ার পরও আমেরিকা যদি তাতে সহযোগিতা না করে তাহলে হাশদ আশ-শাবি মার্কিন সেনাদের ওপর হামলা চালাবে। আমার মনে হয় মার্কিন সেনারা প্রতিরোধ আন্দোলনের মুখোমুখি হতে ভয় পাচ্ছে, কারণ এ ব্যাপারে তাদের তিক্ত অভিজ্ঞতা রয়েছে। ২০১১ সালের চেয়ে এখন ইরাকের প্রতিরোধ সংগঠনগুলো অনেক বেশি সুসংগঠিত ও শক্তিশালী। তারা আগের যেকোনও সময়ের চেয়ে অনেক বেশি প্রস্তুত।’

ইরাকের প্রভাবশালী শিয়া আলেম মুক্তাদা আস-সাদর মার্কিন সেনা বহিষ্কারের দাবিতে মিলিয়ন-ম্যান মার্চ করার ঘোষণা দেওয়ার দুদিন পর হাশদ আশ-শাবির পক্ষ থেকে এসব কথা বলেন আর-রুবাই।

গত ৩ জানুয়ারি মার্কিন সেনারা ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি’র কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে হত্যা করে। এরপর ৫ জানুয়ারি ইরাকের সংসদ সে দেশ থেকে মার্কিন সেনা বহিষ্কারের জন্য সরকারের কাছে দাবি জানিয়ে সর্বসম্মতিক্রমে একটি প্রস্তাব পাস করে। কিন্তু মার্কিন সরকার এ ব্যাপারে অনীহা প্রকাশ করে আসছে। এ নিয়ে ইরাক এবং আমেরিকার মধ্যে পরিষ্কার উত্তেজনা বিরাজ করছে।

Print Friendly, PDF & Email