ইউরোপীয় ইউনিয়নের নতুন সিদ্ধান্তে আরও চাপে ইরান

ইরানের সঙ্গে পরমাণু চুক্তি থেকে বেরিয়ে আসতে চলেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। ২০১৫ সালে ইরানের সঙ্গে এই পরমাণু চুক্তি সম্পন্ন হয়েছিল। ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্য দেশ ব্রিটেন, ফ্রান্স ও জার্মানির তরফ থেকে সম্প্রতি এই সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়েছে।

এই সিদ্ধান্তের ফলে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে ইরানের পরমাণু চুক্তি বাতিল হয়ে যাবে। ইরানের সঙ্গে পরমাণু চুক্তি নিয়ে অস্থিরতা ছিলই। ইউরোপীয় ইউনিয়নের এই সিদ্ধান্তে এই অস্থিরতা আরও বাড়বে বলেই ধরে নেওয়া যায়।

সূত্রের খবর, আগামী কয়েক মাসের মধ্যে ইরানের পরমাণু চুক্তি সম্পূর্ণ বাতিল হতে পারে। যদি তাই হয়, সেক্ষেত্রে তেহরানের ওপর ইউরোপীয় নিষেধাজ্ঞা বলবত্‍‌ হবে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের একটি সূত্র জানাচ্ছে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের মধ্যে যুদ্ধপরিস্থিতির কারণে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। ইরান এখন যে পথে এগোচ্ছে, তাতে আর এক বছরের মধ্যেই পরমাণু বোমা বানিয়ে ফেলবে। জার্মানি, রাশিয়া, চীন, ফ্রান্স ও ব্রিটেনসহ পরমাণু চুক্তিতে স্বাক্ষরকারী ছ’টি দেশের প্রতিনিধিরা বৈঠকে বসে এ বিষয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবে।

২০১৫ সালে ইরান বিশ্বের ছ’টি দেশের সঙ্গে একটি দীর্ঘমেয়াদি চুক্তিতে আসতে সম্মত হয়। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, ফ্রান্স, জার্মানি, চীন এবং রাশিয়া। অর্থাৎ পি ফাইভ প্লাস ওয়ান নামে পরিচিত পরাশক্তিগুলো ছিল এই চুক্তির অংশীদার।

তবে চুক্তি ভেঙে ইরান ইউরেনিয়ামের (চিকিৎসা ও বিদ্যুৎ উৎপাদন কাজে ব্যবহার) মজুদ বাড়াতে থাকে। ২০৩১ সাল পর্যন্ত ইরানকে কেবলমাত্র কম সমৃদ্ধ ইউরেনিয়াম উৎপাদনের অনুমতি দেয়া হয়েছে, যার মাত্রা হবে তিন থেকে চার শতাংশ। কিন্তু এই প্রতিশ্রুতি রাখেনি ইরান। তাই চুক্তি থেকে সরে আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন।

Print Friendly, PDF & Email