হার দিয়ে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের যাত্রা শুরু বাংলাদেশের

হার দিয়ে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্টে যাত্রা শুরু করল স্বাগতিক বাংলাদেশ। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে উদ্বোধনী ম্যাচে আজ বুধবার বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ফিলিস্তিনের কাছে ২-০ গোলে পরাজিত হয়েছে স্বাগতিকরা।

ম্যাচে প্রথমার্ধে কিছুটা লড়াইয়ে থাকলেও দ্বিতীয়ার্ধে ছন্দ হারিয়ে ফেলে লাল-সবুজ জার্সীধারীরা। র‌্যাংকিংয়ে ৮৬ ধাপ উপরে থাকা ফিলিস্তিনের বিপক্ষে শুরুতে পাল্লা দিয়েই লড়াই করেছে বাংলাদেশ। তবে শেষ পর্যন্ত সেটি ধরে রাখতে ব্যর্থ হয় জামাল ভূঁইয়ার দল। চ্যাম্পিয়নদের কাছে ২-০ গোলে হেরেই মাঠ ছাড়তে হয়েছে। ২০১৮ সালে সেমি ফাইনালেও একই ব্যবধানে হেরে ফাইনাল খেলার স্বপ্ন ধূলিসাৎ হয়েছিল বাংলাদেশের। আগামি ১৯ জানুয়ারি গ্রুপ পর্বে নিজেদের দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচে শ্রীলংকার মুখোমুখি হবে লাল-সবুজরা।

বিকেল ৫টায় ম্যাচের শুরু থেকেই সফরকারী ফিলিস্তিনের দুর্গে একের পর এক আঘাত হানতে শুরু করে স্বাগতিকরা। কিন্তু প্রতিপক্ষের রক্ষণ দেয়ালে চিড় ধরাতে ব্যর্থ হয়েছেন মতিন-মামুনুলরা। স্বাগতিক ফরোয়ার্ডদের ফিনিশিংয়েও ব্যর্থতা ছিল স্পষ্ট। অথচ একবার সুযোগ পেয়ে সেটাই কাজে লাগিয়েছে সফরকারীরা। ম্যাচের ২৮ মিনিটে আসা প্রথম সুযোগেই এগিয়ে যায় ফিলিস্তিন। দারউইশের থ্রু পাস থেকে বল নিয়ে খালেদ সালেম গোলরক্ষক আশরাফুল রানার সাইড দিয়ে আলতো টোকায় লক্ষ্য ভেদ করেন (১-০)।

গোল হজমের চার মিনিটের মধ্যেই ম্যাচে সমতা ফেরানোর দারুণ এক সুযোগ ছিল লাল-সবুজদের সামনে। কিন্তু সেটা কাজে লাগাতে পারেননি ডিফেন্ডার তপু বর্মন। রায়হানের থ্রু থেকে বাঁদিকে দাঁড়ানো তপু হেড নিয়েছিলেন। কিন্তু বল অল্পের জন্য সাইডবার ঘেঁষে বাইরে চলে যায়।

প্রথমার্ধে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় র‌্যাংকিংয়ে ১০৬ নম্বরে থাকা ফিলিস্তিন। দ্বিতীয়ার্ধে মাঠে নেমে আক্রমণের ধারা অব্যাহত রাখে অতিথিরা। পরিকল্পিত আক্রমণের ফল পেতেও খুব একটা সময় লাগেনি। দ্বিতীয়ার্ধ শুরুর মাত্র ১৩ মিনিটেই ম্যাচে আরও একধাপ এগিয়ে যায় ফিলিস্তিন। এবার গোলের নায়ক খারুব। ডান প্রান্ত দিয়ে সতীর্থের লম্বা পাস রিসিভ করে বক্সের ভেতর থেকে ডান পায়ের শটে গোল করেন এ ফরোয়ার্ড (২-০)। ডিফেন্ডার ইয়াসিন বল ক্লিয়ার করতে পারতেন। কিন্তু তিনি হেড নিতে ব্যর্থ হওয়াতেই বল পেয়ে যান খারুব। বল পেয়ে আর ভুল করেননি। সরাসরি শটে গোল আদায় করে নেন। এরপর ম্যাচে ফিরে আসার জন্য প্রানান্তর চেষ্টা চালিয়েছিলেন জেমি ডে’র শিষ্যরা। কিন্তু প্রতিপক্ষের ডিফেন্ডারদের সামনে অসহায় ছিল জামাল বাহিনী। একটি আক্রমণও তাদের বক্সের মধ্যে ফেলতে পারেননি এই অর্ধে। প্রতিটি আক্রমণই মাঝপথে নষ্ট হয়ে গেছে।

এর আগে, প্রধান অতিথি হিসেবে মুজিব বর্ষের এই টুর্নামেন্টের ষষ্ঠ আসরের উদ্বোধন করেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক। বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি কাজী মোহাম্মদ সালাউদ্দিন এসময় উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email