হত্যাযজ্ঞের রেকর্ড যুক্তরাষ্ট্রে

অন্য যেকোনও বছরের চেয়ে ২০১৯ সালে যুক্তরাষ্ট্রে সবচেয়ে বেশি ‘হত্যাযজ্ঞ (মাস কিলিং)।

এক্ষেত্রে ঘাতক ছাড়া চার বা ততোধিক ব্যক্তি একই ঘটনায় নিহত হলে এটাকে ‘মাস কিলিং বা হত্যাযজ্ঞ’ হিসেবে সংজ্ঞায়িত করা হয়েছে।

অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস (এপি), ইউএসএ টুডে এবং নর্থ-ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটির সমন্বিত তথ্যভাণ্ডারে এমন চিত্র ওঠে এসেছে। খবর বিবিসি’র।

এই তথ্যভাণ্ডার অনুযায়ী, ২০১৯ সালে এ ধরনের হত্যাযজ্ঞের ৪১টি ঘটনায় মোট ২১১ জন নিহত হয়েছেন।

এসব ঘটনার মধ্যে সবচেয়ে বেশি প্রাণঘাতী ছিল মে মাসে ভার্জিনিয়া সৈকতে ১২ জনকে হত্যা এবং আগস্টে এল পাসো-তে ২২ জনকে হত্যা।

তথ্যভাণ্ডার অনুযায়ী, ২০১৯ সালের ৪১টি হত্যাযজ্ঞের মধ্যে ৩৩টি ছিল আগ্নেয়াস্ত্র ঘটিত। ক্যালিফোর্নিয়ায় সবচেয়ে বেশি আটটি হত্যাযজ্ঞের ঘটনা ঘটে।

এই তথ্যভাণ্ডারে ২০০৬ সাল নাগাদ যুক্তরাষ্ট্রে সংঘটিত সব হত্যাযজ্ঞের তথ্য সন্নিবেশিত করা হয়। অবশ্য গবেষকরা বলেছেন, ১৯৭০ সাল নাগাদ এত বেশি হত্যাযজ্ঞের ঘটনা ঘটেনি। এ ধরনের হত্যাযজ্ঞ ২০০৬ সালে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৮টি সংঘটিত হয়।

যদিও ২০১৯ সালে যুক্তরাষ্ট্রে সবচেয়ে বেশি হত্যাযজ্ঞের ঘটনা ঘটেছে, কিন্তু প্রাণহানির হিসেবে সবচেয়ে রক্তাক্ত বছর ২০১৭ সাল। ওই বছর এ ধরনের হামলায় ২২৪ জন নিহত হয়েছে। লাস ভেগাসের এক উৎসবেই বন্দুক হামলায় নিহত হয়েছিল ৫৯ জন যা এ ধরনের ঘটনায় দেশটির ইতিহাসে সবচেয়ে প্রাণঘাতী।

Print Friendly, PDF & Email