সাদাকে সাদা ও কালোকে কালো হিসেবে বিচার করলেই সমাজ উন্নয়ন সম্ভব :লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসক

নিজস্ব প্রতিবেদক:
মানুষ সামাজিক জীব। নিজস্ব দৃষ্টিকোন থেকে সমাজে সাদাকে সাদা ও কালোকে কালো হিসেবে বিচার করলেই সমাজ উন্নয়ন সম্ভব বলে মন্তব্য করেছেন লক্ষ্মীপুরের জেলা প্রশাসক অঞ্জন চন্দ্র পাল।
সোমবার (২৩ ডিসেম্বর) দুপুরে লক্ষ্মীপুর মাদাম এলাকা সংলগ্ন একটি রেস্টুরেন্টে লক্ষ্মীপুর সমাজ উন্নয়ন পরিষদের বার্ষিক সাধারণ সভা, শিক্ষার্থীদের বৃত্তির চেক বিতরণ ও শীতার্থদের মাঝে কম্বল বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব মন্তব্য করেন।
তিনি বলেন, সমাজে ভালো-মন্দ দু’টিই বিদ্যমান। সমাজে বসবাসরত মানুষগুলোকে সমাজ উন্নয়নে সচেতন হতে হবে। সমাজের ভালো কাজের ক্ষেত্রে সকলে এগিয়ে আসা এবং মন্দ কাজে বাধা বা প্রতিহত করাই প্রকৃত সমাজকর্মীর দায়িত্ব। একই সাথে অন্যায়কে প্রতিহত করে ন্যায় প্রতিষ্ঠা করা। তবেই সমাজ উন্নয়নে স্বার্থকতা আসবে।
তিনি আরো বলেন, সমাজের মানুষগুলোর শিক্ষ ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে। মনে রাখতে হবে, যে সমাজে যত বেশি শিক্ষিত হয়, সে সমাজ তত বেশি উন্নত হয়। শিক্ষিত সমাজই পারে সফলতার ধারপ্রান্তে পৌছাতে। এসময় তিনি সরকারি ও বেসরকারি ভাবে সকলেই সমাজ উন্নয়নে কাজ করার আহ্বান জানান।
এতে লক্ষ্মীপুর সমাজ উন্নয়ন পরিষদের সভাপতি জেড এম ফারুকীর সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রিয়াজুল করিম, জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক নুরুল ইসলাম পাটোয়ারী প্রমূখ।

অতিথিদের বক্তব্য শেষে ২৬জন মেধাবী শিক্ষার্থীকে ২ হাজার টাকা হারে বৃত্তি প্রদান ও শতাধিক দরিদ্র শীতার্থ পরিবারের মাঝে কম্বল বিতরণ করেন অতিথিবৃন্দ।
অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে লক্ষ্মীপুর সমাজ উন্নয়ন পরিষদের ২০১৮-১৯ অর্থবছরের আয়-ব্যয় ও উদ্বৃত্ত তুলে ধরা হয়। এতে মোট আয় হয় ৩ লাখ ১৯ হাজার ৮২১ টাকা, অপরদিকে মোট ব্যয় পরিমাণ ধরা হয় ২লাখ ৪৫ হাজার ৮১২.৮০টাকা। এতে উদ্বৃত্ত হয় ৭৪ হাজার টাকা। পরে আগামী অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট পেশ করা হয়। এতে আয়ের পরিমান ৫ লাখ ৪৪ হাজার ৫০০ টাকা, ব্যয় ৪ লাখ ৭৭ হাজার টাকা ও মোট উদ্বৃত্ত ধরা হয় ১লাখ ৪১ হাজার ৫০৮.২০ টাকা।

Print Friendly, PDF & Email