অনিয়ম দুর্নীতির আঁতুড়ঘর লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদ : পর্ব ১

নিজস্ব প্রতিবেদক :
অনিয়ম দুর্নীতির আঁতুড়ঘরে পরিণত হচ্ছে লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদ। চেয়ারম্যান, সদস্য, কর্মকর্তা, কর্মচারীদের সমন্বয়হীনতায় দিনদিন স্থবির হয়ে পড়ছে প্রতিষ্ঠানটির কার্যক্রম। তবে কোটেশন, নাম সর্বস্ব প্রকল্প ও বেয়ারা চেকের মাধ্যমে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ রয়েছে প্রতিষ্ঠানটির সাথে জড়িত একটি চক্রের বিরুদ্ধে। বিষয়গুলো নিয়ে ইতিমধ্যে দুর্নীতি দমন কশিন (দুদক) ওই কার্যালয়ে অভিযান চালিয়েছে।

এদিকে গরীব, দুস্থদের সেবা ও জনকল্যাণে অবদান রাখার কথা থাকলেও স্থানীয় সরকারের বৃহৎ এই প্রতিষ্ঠানটি হয়ে উঠেছে অনিয়ম আর দুর্নীতির মহা আখড়া।

জেলা পরিষদের তালিকাভুক্ত একাধিক ঠিকাদার শীর্ষ সংবাদকে জানান, লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের বরাদ্ধকৃত টাকা টেন্ডারের মাধ্যমে না দিয়ে কোটেশন, বিল ভাউচার ও সদস্যদের মাঝে বন্টন করা হচ্ছে। ফলে প্রতিষ্ঠানটির তালিকাভুক্ত ঠিকাদাররা কাজ না পেয়ে কর্মহীন হয়ে পড়ছে। এছাড়াও নামসর্বস্ব যে কয়কেজন ঠিকাদার রয়েছে তাঁরা দরপত্র অনুসারে কাজ করলেও ৬ ভাগ হারে ঘুষ দিতে হচ্ছে।

লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের সদস্য মাহাবুবুল ইসলাম মাহাবুব শীর্ষ সংবাদকে জানান, গত ৩ বছর যাবত জেলা পরিষদের মাসিক সম্বয়সভায় আগের রেজুলেশন না পড়ে আমাদের কাছ থেকে স্বাক্ষর নেয়া হচ্ছে। ফলে আমরা কিছুই জানতে পারিনা। তবে জেলা পরিষদের আমলাতান্ত্রিক জটিলতা ও সমন্বয়হীনতা চরম আকার ধারণ করেছে বলে জানান তিনি।

এবিষয়ে জানতে লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোনের সংযোগ কেটে দেন।

সচেতনমহলের মতে, সঠিক জবাবদিহিতা না থাকায় প্রতিষ্ঠানটির দুর্নীতির লাগাম টেনে ধরা যাচ্ছে না।

চলবে…

Print Friendly, PDF & Email