যত জোরে সম্ভব বল পিটিয়ে সীমানাছাড়া করি : হেটমায়ার

ক্যারিবীয় দানব ক্রিস গেইলের যোগ্য উত্তরসূরি হিসেবে ধরা হয় তাকে। সেই শিমরন হেটমায়ার বারবার প্রমাণ দিয়ে যাচ্ছেন যে, বিশেষেজ্ঞদের দেওয়া ওই উপাধি এমনি এমনি নয়। দুর্দান্ত সেঞ্চুরি করে রবিবার ভারতের বিপক্ষে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে জেতানোর পর আবারও তিনি আলোচনার কেন্দ্রে। ১০৬ বলে ১৩৯ রানের ইনিংসে ছিল ১১ বাউন্ডারি এবং ৭টি ওভার বাউন্ডারি। এই নিয়ে ৫টি ওয়ানডে সেঞ্চুরি হয়ে গেল হেটমায়ারের। ভারতের বিপক্ষে এটা তার দ্বিতীয় সেঞ্চুরি।

এমন পাওয়ার হিটিংয়ের পিছনে রহস্যটা কী? ম্যাচের সেরা ক্রিকেটারের পুরস্কার নিতে এসে এই প্রশ্নের মুখে পড়তে হয় হেটমায়ারকে। জবাবে একটু হেসে ক্যারিবিয়ান ব্যাটসম্যান বলেন, ‘সত্যি কথা বলতে কী, আমি যতটা সম্ভব জোরে বল মারার চেষ্টা করি। আমার লক্ষ্য একটাই। বলটাকে বাউন্ডারি লাইনের ওপারে পাঠানো। এই সেঞ্চুরির মূল্য আমার কাছে অনেক। এই বছরের শুরুতে সর্বশেষ সেঞ্চুরিটা পেয়েছিলাম। পরের বছরে আমার লক্ষ্য হবে ধারাবাহিক ভাবে ভালো খেলা।’

হেটমায়ারের বিধ্বংসী ইনিংসে মুগ্ধ অনেক সাবেক ক্রিকেটার। ভিভিএস লক্ষ্মণ টুইট করেছেন, ‘দারুণ পরিণত মস্তিষ্কের পরিচয় দিল হেটমায়ার। ম্যাচটা একই ঘুরিয়ে দিয়েছে। হোপও খুব ভালো খেলেছে। এই জয়টা উইন্ডিজের প্রাপ্য ছিল।’ সাবেক ক্যারিবীয় পেসার ইয়ান বিশপের টুইট, ‘খুব নিয়ন্ত্রিত একটা ইনিংস খেলেছে হেটমায়ার। ঠান্ডা মাথায় নিজের ইনিংসকে টেনে নিয়ে গেছে।’ অধিনায়ক কায়রন পোলার্ড বলেছেন, ‘ইদানীং হেটমায়ারের খুব সমালোচনা হচ্ছিল। আসল ব্যাপারটা হলো নিজের ভূমিকাটা বুঝতে পারা আর দায়িত্ব পালন করা। ওর ওপর টিম ম্যানেজমেন্টের সম্পূর্ণ আস্থা আছে।’

Print Friendly, PDF & Email