আদর্শ স্বামীর মতোই স্ত্রীকে ‘বিরাট’ উপহার দিলেন কোহলি

হায়দরাবাদের মতো ওয়াংখেড়েও সাক্ষী থাকল ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলির দ্বৈত সত্ত্বার। প্রথমজন, ব্যাটসম্যান কোহলি।

যিনি প্রমাণ করলেন ফরম্যাট যাই হোক না কেন, তাঁর হাতে ব্যাট থাকা মানেই দিনের শেষে নাস্তানাবুদ হতে হচ্ছে বোলারদের। মাঠ ছাড়তে হচ্ছে মাথা নিচু করে। বুধবার রাতেও যিনি উপহার দিলেন আর এক স্মরণীয় ইনিংস। করলেন ২৯ বলে ৭০। দ্বিতীয়জন, বন্য কোহলি।

যিনি শুধু বলগুলো বাউন্ডারির ওপারেই পাঠালেন না। বরং ক্যারিবিয়ানদের আগ্রাসনের পালটা উপহার দিলেন আগ্রাসনই। প্রতিটা বিগ হিট করার পর যেমন বুক চাপড়ালেন। ফিফটির পর ব্যাট তুলে ক্যামেরার দিকে ‘কাম অন’ বললেন। আবার ম্যাচ জেতার পরে হাত আকাশে ছুঁড়ে লাফালেনও।

পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে কোহলির নামের পাশেই বসল সিরিজ সেরার তকমা। তবে তখন তিনি যেন নির্লিপ্ত। যাঁর মুখে বাড়তি উত্তেজনা নেই। বললেন, ‘ম্যাচের আগে আমরা যা প্ল্যান করেছিলাম সেটা কার্যকরী হয়েছে দেখে ভালো লাগছে। আমি ছন্দে ছিলাম। লোকেশকে (রাহুল) বলেছিলাম ওকে ব্যাট করে যেতে হবে।’

১১ ডিসেম্বর ২০১৯- এই তারিখটাই যেন কোহলির জীবনে ‘লাকি চার্ম’। দু’বছর আগে এই দিনেই তো অনুষ্কা শর্মার সঙ্গে বিয়ে করেছিলেন বিরাট। আর দ্বিতীয় বিবাহবার্ষিকীতে এমন একটা ইনিংস খেলার পেছনে অনুপ্রেরণা তাঁর স্ত্রী-ই মানছেন ভারত অধিনায়ক।

নিজের ক্রিকেটীয় সত্ত্বা কয়েক মিনিটের জন্য দূরে রেখে যিনি বললেন, ‘এই ইনিংসটা আমার কাছে চিরজীবন খুব স্পেশ্যাল হয়ে থাকবে। আজ আমার দ্বিতীয় বিবাহবার্ষিকী। আর সেই দিনে এমন একটা স্পেশ্যাল ইনিংস আমার স্ত্রীকে দেওয়া আদর্শ উপহার।’

Print Friendly, PDF & Email