দেশে আসলো আরও ৪ হাজার টন পেঁয়াজ

মিয়ানমার, চীন, মিশর ও তুরস্ক থেকে আরও ৪ হাজার ১৫৯ টন পেঁয়াজ আমদানি করা হয়েছে। আজ শুক্রবার বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গতকাল ৫ ডিসেম্বর দেশে ৪ হাজার ১৫৯ টন পেঁয়াজ আমদানি করা হয়েছে। এর মধ্যে টেকনাফ হয়ে দেশে এসেছে ১ হাজার ২২৭ টন পেঁয়াজ এবং চট্রগ্রাম সমুদ্র বন্দর হয়ে এসেছে ২ হাজার ৯৩২ টন পেঁযাজ। এগুলোর মধ্যে মিয়ানমার থেকে ১ হাজার ২২৭ টন, চীন থেকে ৩৮৪ টন, মিসর হতে ৮৪ টন এবং তুরস্ক হতে ২ হাজার ৫শ’ টন পেঁয়াজ আমদানি করা হয়েছে। বিভিন্ন আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান এ সব পেঁয়াজ আমদানি করছে।

দেশে পেঁয়াজের সরবরাহ ও মূল্য স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত প্রতিদিন এ পেঁয়াজ আমদানি অব্যাহত থাকবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

এছাড়া বাণিজ্যমন্ত্রণালয় দেশে পেঁয়াজ আমদানি সরবরাহ এবং সার্বিক পরিস্থিতিতে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে মনিটরিং অব্যাহত রেখেছে বলে জানানো হয়।

গত সেপ্টেম্বরের শেষ দিকে ভারত পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়ায় বাংলাদেশের বাজারে পেঁয়াজের দাম আকাশচুম্বী হয়ে যায়। ৩০ টাকার পেঁয়াজ লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়ে ২৫০ টাকার ওপরে গিয়ে ঠেকে। সেই দাম এখনো অব্যাহত রয়েছে। এরপর বিভিন্ন দেশ থেকে পেঁয়াজ আমদানি করা শুরু হয়। সেই ধারাবাহিকতায় এসব পেঁয়াজ আসছে দেশে।

Print Friendly, PDF & Email