লক্ষ্মীপুরে সড়কে চাঁদাবাজি : ৯ জনকে জেলে প্রেরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক :

লক্ষ্মীপুরে মহাসড়ক ও আঞ্চলিক সড়কে বাস, ট্রাক, অটোরিক্সা সহ পরিবহনে বেপরোয়া চাঁদাবাজির অভিযোগে পুলিশ আটককৃত ৯ জনকে দ্রুত বিচার আইনে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে।

বুধবার জেলা গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক রাহেদুল ইসলাম বাদী হয়ে রায়পুর থানায় গ্রেপতারকৃত ২ জনের বিরুদ্ধে একটি এবং উপ-পুলিশ পরিদর্শক মোঃ আবদুল মান্নান বাদী হয়ে ৭ জনের বিরুদ্ধে সদর থানা আরো একটি সহ আলাদা দুটি মামলা দায়ের করেন।

এরপর বুধবার ওই দুই মামলায় তাদের গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে জেলা হাজতে পাঠায়। এর আগে মঙ্গলবার দিনভর লক্ষ্মীপুর সদর ও রায়পুর উপজেলার বিভিন্ন স্থানে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ পৃথক অভিযান চালায় এবং বাঞ্চানগর গ্রামের মোরশেদুল আলম,এনামুল হক দুলাল, চরলামচি গ্রামের আবুল হাশেম, সাহাপুর গ্রামের তোফায়েল,মধ্য চররমনী গ্রামের জাকির হোসেন, সমসেরাবাদ মোবারক কলোনীর মোঃ সুমন, চাঁদখালীর গ্রামের দিদার, রায়পুরের শায়েস্তানগর গ্রামের মোঃ বিল্লাল হোসেন ও দেনায়েতপুর গ্রামের আবু তাহের সহ এ ৯ জনকে আটক করে।

লক্ষ্মীপুর জেলা গোয়েন্দা বিভাগের পরিদর্শক মোক্তার হোসেন জানান, পুলিশ সুপারে চাঁদাবাজি পুরোপুরি বন্ধ না হওয়া পর্যন্ত অভিযান অব্যাহত থাকবে।

লক্ষ্মীপুরের পুলিশ সুপার ড. এ এইচ এম কামরুজ্জামান জানান, সড়কে চাঁদাবাজি রোধে জেলা পুলিশ প্রশাসন জিরু টলারেন্স অবস্থানে রয়েছে। এর সঙ্গে যাকেই জড়িত পাওয়া যাবে তার বিরুদ্ধে আইনগত কঠোর ব্যাবস্থার কথা জানান জেলা পুলিশের এই কর্মকতা।