লক্ষ্মীপুরে ময়লার স্তুপে ফুলের বাগান করলো বিডি ক্লিন

নিজস্ব প্রতিবেদক :

লক্ষ্মীপুর সরকারি মহিলা কলেজের সামনে ছিল ময়লা-আবর্জনার স্তুপ। আশপাশের লোকজন নিয়মিত সেখানে বর্জ্য ফেলতেন। ফলে দুর্গন্ধে অতিষ্ঠ হয়ে পড়তেন প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষার্থীরা। নাক-মুখ চেপে কোনরকম পাশ কাটিয়ে চলাচল করতেন পথচারিরা। বহুবার চেষ্টা করেও কলেজ কর্তৃপক্ষ ওই স্থানে ময়লা-আবর্জনা ফেলা থেকে বিরত রাখতে পারেননি স্থানীয়দের। কয়েকবার পৌরসভার দারস্ত হয়েও সুফল পাননি তারা। তাইতো ময়লার ভাগাড়ে পরিণত ছিল স্থানটি।

সম্প্রতি গত সোমবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সেই ময়লার ভাগাড়টি পরিস্কার করে ফুলের বাগান করলেন বিডি ক্লিন নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। এর পর থেকেই সেখানে কেউ আর ময়লা ফেলছেন না। এখন ওই স্থানটি শোভা পাচ্ছে সৌন্দর্য।

বিডি ক্লিন সদস্য ও কলেজটির দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থী ফারিয়া জান্নাত শীর্ষ  সংবাদকে বলেন, ময়লা আবর্জনার স্তুপ থাকায় আসা-যাওয়ায় ও ক্লাস করতে সমস্যা হতো। তাছাড়া শ্বাসকষ্ট, ক্যান্সার, হৃদরোগসহ পরিবেশ দূষণ জনিত রোগের ঝুঁকিতে ছিল শিক্ষার্থীরা। স্থানটি থেকে ময়লা সরানোর কথা কয়েকবারই শিক্ষক ও সহপাঠিদের বলেছে সে। তাতে কোন কাজে আসেনি। বিষয়টি বিডি ক্লিনের স্বেচ্ছাসেবকদের জানানোর পর পরিচ্ছন্নতার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

সংগঠনটির জেলা সমন্বয়ক সাইদুজ্জামান সৈকত শীর্ষ সংবাদকে জানান, ‘ময়লার স্তুপের কারনে শিক্ষার্থীসহ পথচারিদের সমস্যার বিষয়টি জানার পর পরিস্কারের উদ্যোগ নিয়েছি। পরিস্কারের পর ওই স্থানে সংগঠনটির স্বেচ্ছাসেবকদের অর্থে টগর, রঙ্গনসহ বিভিন্ন প্রজাতির ৫৫টি ফুলের চারাও রোপন করেছেন। পাশাপাশি চারাগুলো যাতে বিনষ্ট না হয় সেজন্য বাঁশের খুটিতে জাল বেধে বেড়া স্থাপন করেছেন।’।

সৈকত আরো বলেন, সংগঠনটির কর্মীদের স্বেচ্ছাশ্রমে গত দু’বছর থেকেই লক্ষ্মীপুরের বিভিন্ন স্থানে পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযান করা হয়েছে। এছাড়া স্কুল-কলেজসহ বিভিন্ন লোকালয়ে কয়েকটি সচেতনতামূলক প্রোগাম করা হয়। তবে তিনি মনে করেন স্থানীয় প্রশাসন ও জেলাবাসী সচেতন হলে স্বপ্নের পরিচ্ছন্ন লক্ষ্মীপুর গড়া সম্ভব।

সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) লক্ষ্মীপুর শাখার সদস্য জেড এম ফারুকী শীর্ষ সংবাদকে বলেন, শিক্ষকদের কাজ শুধু শ্রেণী কক্ষে পাঠদান নয়। ক্যাম্পাস আঙিনা পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন ও শিক্ষার্থীদের সুযোগ সুবিদা নিশ্চিত করাও তাদের দায়িত্ব। কিন্তু দীর্ঘদিন সেটি করতে ব্যর্থ হয়েছেন কলেজটির দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষকগণ। অথচ সে কাজটি একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের মাত্র কয়েকজন স্বেচ্ছাসেবক করেছেন। তারা ময়লার ভাগাড়কে পরিস্কার করে ফুলের বাগান তৈরি করেছেন। এটি নিঃসন্দেহে প্রসংশিত উদ্যোগ।

লক্ষ্মীপুর সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রসূন চন্দ্র মজুমদার শীর্ষ সংবাদকে বলেন, দীর্ঘদিন থেকে বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতা থাকায় ময়লার স্তুপটি পরিস্কার করা সম্ভব হয়নি। বর্তমানে স্থানীয় প্রশাসনের সহযোগিতার আশ্বাসে পরিচ্ছন্নতার উদ্যোগ নেওয়া হয়। আর কাজটি বাস্তবায়ন করেছেন কলেজটির শিক্ষার্থীসহ বিডি ক্লিন নামে একটি সংগঠনের স্বেচ্ছাসেবকরা।

শীর্ষ সংবাদ/এফএইচ