লক্ষ্মীপুরে ভূমি দখলের চেষ্টা : এলাকায় অসন্তোষ

নিজস্ব প্রতিবেদক :
লক্ষ্মীপুরে চন্দ্রগঞ্জ থানার হাজিরপাড়া ইউনিয়নের চরচামিতা গ্রামে কেন্দ্রিয় যুবলীগের এক নেতার আত্মীয় পরিচয় দিয়ে শামিম সিকদার ওরফে মানিক গং ও এলাকার সন্ত্রাসী নিয়ে একই এলাকার জয়নাল আবেদীন ও আনোয়ার হোসেনের ৪২ শতাংশ ভূমি দখলের চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, চরচামিতা ১৭২নং মৌজার এম আর ২১৮ নং খতিয়ানভুক্ত ১২৪৭ দাগ, যা বর্তমানে আর এস ৩৪৯ খতিয়ানভুক্ত হালে ২৮৪৫,২৮৪৭,২৮৬৮ এবং ২৮৭৪ দাগে মোট ৪২ শতাংশ ভূমি ১৯৬০ সালে আবদুল হামিদ মালিক থাকিয়া বর্তমানে তার ওয়ারিশ ২ পুত্র আনোয়ার হোসেন, জয়নাল আবেদীন বর্তমানে রিভিশন জরীপে মালিক হয়ে দীর্ঘ দিন ভোগদখল করে আসছে।

সম্প্রতি শামিম সিকদার ওরফে মানিক গং হাজিরপাড়া ইউনিয়নের সাবেক মেম্বার তাজুল ইসলাম ও হেলাল উদ্দিনের সহায়তায় উক্ত ভূমি দখলে পাঁয়তারা করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত ২২/০৮/১৯ ইং তারিখে শামিম সিকদার গং এলাকার ভাড়াটিয়া লোক নিয়ে জয়নাল আবেদীনের নির্মানাধীন মার্কেটে ৪ টি দোকানে তালা দেয়।

যাহা সাবেক ৭৫১ দাগ হয়। পরবর্তীতে ইউপি মেম্বারের উপস্থিতিতে ও স্থানীয় গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গের সহায়তায় তালা খুলতে বাধ্য হয়।

সম্প্রতি ওই চক্র পুনরায় ১২৪৭ দাগে ৪২ শতাংশ ভূমি দখলের চেষ্টা করলে জয়নাল আবেদীন পিতা: আবদুল হামিদ, বাদী হয়ে গত ১২/০৯/১৯ ইং তারিখে লক্ষ্মীপুর অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্টেট আদালতে একটি ১৪৪ মামলা দায়ের করেন। উক্ত জমি জয়নাল আবেদীন বিগত একশত বছর যাবত ভোগ দখল করে আসছে এবং রিভিশন জরীপ তাদের নামে রেকর্ড হয় বলে এলাকাবাসী জানান।

উক্ত মামলা চন্দ্রগঞ্জ থানা কে স্থিতি অবস্থায় রাখার এবং সহকারী কমিশনার (ভূমি) কে তদন্ত করে প্রতিবেদন প্রদানের জন্য নির্দেশ প্রদান করে আদালত। কিন্তু ১৪৪ ধারা জারির পরও শামীম গং এলাকায় ভাড়াটিয়া লোকদের নিয়ে ও কেন্দ্রিয় এক যুবলীগ নেতার নাম ভাঙ্গিয়ে চন্দ্রগঞ্জ থানা ও এলাকায় প্রভাব খাটানোর চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভক্তভোগীরা এ ব্যাপারে কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করছে।