৯ কারণে ভালবাসার সম্পর্ক ভেঙে যায়

পার্টনারকে চিট করে তার অজ্ঞাতে অন্য কারোর সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পরা প্রেম ভেঙে যাওয়ার মোস্ট কমন কারণ।ধীরে ধীরে বহু কারণের জন্য একটা সম্পর্ক যেমন সুন্দর হয়ে ওঠে, তেমনই অনেক কারণ জমে জমে একটা সম্পর্ক শেষ হয়ে যায় ভালবাসার সম্পর্ক। কেন নষ্ট হয়ে যায় উথাল পাথাল প্রেম? জেনে নিন এই গ্যালারিতে-

১. নিজের ইচ্ছামত পার্টনারকে বদলে যাওয়ার জন্য চাপ দেওয়া: সবার তার নিজের মতই হয়, জোর করে কাউকে‌ আমূল বদলাতে চাইলে আখেরে ফল খারাপই হয়। সম্পর্ক আরও খারাপ হয়।

২. ইমোশনালি নিজেকে সরিয়ে আনা: সম্পর্কে আছি কিন্তু নেই। সুখে ভালবাসি বললেও ঘাটতি থাকছে আবেগে।ইমোশনাল দূরত্ব তৈরি হওয়া মানে সম্পর্কের শেষের শুরু।

৩. পার্টনারের দুর্বলতা নিয়ে বারবার কথা বলা: কেউ পারফেক্ট হয় না। কেউ সবেতেই দক্ষ হয় না।কিন্তু পার্টনারের দুর্বলতা, খারাপ লাগা নিয়ে সব সময় কথা বললে তার হীনমন্যতা বাড়ে। সম্পর্কেও তিক্ততা আসে।

৪. কথায় কথায় মিথ্যে বলা: প্রয়োজনে একটু আধটু মিথ্যে সবাই বলে। কিন্তু কথায় কথায় সঙ্গি বা সঙ্গিনীকে মিথ্যে বললে সম্পর্কে বিশ্বাসটুকুই বেঁচে থাকে না।
ভিত নষ্ট হলে সম্পর্কে ভেঙে পড়তে বাধ্য।

৫. প্রয়োজনের সময় পার্টনারের পাশে না দাঁড়ানো: সুখের সময় অনেকেই পাশে থাকে।কিন্তু খারাপ সময়ই আসল ভালবাসা বুঝিয়ে দেয়। বিপদে-আপদে পার্টনারের পাশে না দাঁড়ালে সম্পর্ক ভাঙতে বাধ্য।

৬. চিটিং: পার্টনারকে চিট করে তার অজ্ঞাতে অন্য কারোর সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পরা প্রেম ভেঙে যাওয়ার মোস্ট কমন কারণ।

৭. পার্টনারকে ফর গ্রান্টেড ধরা: বহুদিন ধরে এক সঙ্গে থাকতে থাকতে অনেকেই পার্টনারকে ফর গ্রান্টেড ধরে নেয়।আলাদা করে মানুষ হিসেবে তার অস্তিত্বের দিকে খেয়ালই করে না, ভাবে সে যাই করুক না কেন, পার্টনার তার জন্য পরেই থাকবে। সম্পর্কে ঘুণ কিন্তু এ ভাবেই ধরে।

৮. নিজের চাহিদা, প্রয়োজনগুলো সব সময় পার্টনারের উপর চাপিয়ে দেওয়া: সঙ্গি বা সঙ্গিনীর ভাললাগা, খারাপ লাগাকে একটুও পাত্তা না দিয়ে
সব সময় নিজের চাহিদা তার উপর চাপিয়ে দিলে সম্পর্কে ফাটল ধরতে বাধ্য।

৯. নিজের ইচ্ছামত পার্টনারকে বদলে যাওয়ার জন্য চাপ দেওয়া: সবার তার নিজের মতই হয়, জোর করে কাউকে‌ আমূল বদলাতে চাইলে আখেরে ফল খারাপই হয়। সম্পর্ক আরও খারাপ হয়।

এই বিভাগের আরো সংবাদ