লক্ষ্মীপুরে ছেলেধরা-কল্লাকাটা গুজব : সচেতন হতে বললো পুলিশ সুপার

নিজস্ব প্রতিবেদক :
লক্ষ্মীপুরে গত কয়েকদিন ধরে আশপাশের বিভিন্ন অঞ্চলগুলোতে ‘কল্লাকাটা’ কিংবা ‘ছেলেধরা’ সংশ্লিষ্ট কিছু খবর ছড়াচ্ছে। যদিও এখন পর্যন্ত এসব ঘটনার একটিরও কোনো সত্যতার প্রমাণ পায়নি আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। তাই বিষয়টি সম্পূর্ণ গুজব মনে করেন লক্ষ্মীপুরের পুলিশ সুপার আ স ম মাহতাব উদ্দিন। তিনি জানান, মাঠ পর্যায়ে এ নিয়ে সার্বক্ষণিক কাজ করছে পুলিশ।

আজ (৯ জুলাই) মঙ্গলবার সকাল ১১টায় পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় এ তথ্য জানান লক্ষ্মীপুরের পুলিশ সুপার।

এসময় পুলিশ সুপার বলেন, সবাই শুনেছে কিন্তু এরকম কোনো ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায়নি। আমরা অভিভাবক ও বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের আশ্বস্ত করছি এবং এ ধরনের গুজব যাতে বিশ্বাস না করে সেজন্য বলছি। আমরা সবাইকে সতর্ক হতে বলবো কিন্তু আতঙ্কিত নয়। আপনাদের নিরাপত্তায় আইন-শৃংখলা বাহিনী প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছে।

সাম্প্রতি লক্ষ্মীপুরের বিভিন্ন স্থানে ছেলেধরা সন্ধেহে কয়েকজনকে আটক করে স্থানিয় জনতা। পরে পুলিশের নিকট তাদেরকে সোপর্দ করে। এ বিষয়ে পুলিশ সুপার বলেন, আটককৃতদের বেশির ভাগই মানসিক ভারসাম্যহীন। তাই গুজবে কান না দিয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের বিদ্যালয়ে পাঠানোর জন্য অভিবাবকদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, কেউই চোখে কিছু দেখেননি, সবাই শুনেছেন। আবার নামে-বেনামে অনেক ফেসবুক আইডি থেকে তথ্য-প্রমাণ ছাড়া এ ধরনের গুজবের খবরও ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে।

এ বিষয়ে লক্ষ্মীপুরের পুলিশ সুপার আ স ম মাহতাব উদ্দিন আরো বলেন, ‘আমি মনে করি, পুলিশকে ব্যস্ত রাখার কৌশল কিংবা পদ্মাসেতুর বিষয়ে গুজব ছড়িয়ে সরকারের বিরুদ্ধে অপপ্রচার হতে পারে। মনে রাখতে হবে এরকম একটা ঘটনা ঘটলে তা কিন্তু সঙ্গে সঙ্গে ভাইরাল হয়ে যায়। অপপ্রচার কারীদের চিহ্নিত করে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা।